NarayanganjToday

শিরোনাম

এসপি হারুন একজনই হয় : জেলা প্রশাসক


এসপি হারুন একজনই হয় : জেলা প্রশাসক

অতিরক্ত পলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুনের কথার সূত্র ধরে জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দীন বলেছেন, হারুন একজনই হয়। আমরা দেখিছি, প্রশাসনের মধ্যে হারুনদের মতো সাহসি মানুষ খুব কমই জন্মায়।

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) দুপুরের দিকে মাসদাইর এলাকায় পুলিশ লাইন্সে জেলা পুলিশের আয়োজনে বিদায় সংবর্ধনাকালে ওই কথা বলেন তিনি।

জসিম উদ্দীন বলেন, বিদায় সবসময় সবার জন্য কষ্টদায়ক। আমার জন্য একটু বেশি কষ্টের। আমার কষ্ট দুই কারণে। বন্ধু চলে যাচ্ছে এই কারণে আর দ্বিতীয় কে আসবে সেই মধ্যবর্তী সময়ের কষ্ট।

তিনি বলেন, হারুনের যেটা ভালো দিক সেটা আমরা কাজে লাগাবো। যদি তার কোনো ভুল থাকে সেগুলো আমরা ক্ষমা করে দেবো। সে ভবিষ্যতেও ভালো থাকবে এই আশা করি।

তিনি আরও বলেন, খুব অল্প সময়ে তার এই বিদায় সংবর্ধনা হচ্ছে। খুব আয়োজন করে বিদায় নিচ্ছে এ বিষয়ে আমি গর্বিত, বন্ধু হিসেবে গর্বিত। সাংবাদিক ভাইরা উপস্থিত হয়ে এই অনুষ্ঠানটা আরও সুন্দর করেছেন। তবে আরও ব্যাপক করতে পারলে আমার কাছে আরও ভালো লাগতো।

পুলিশ প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ রেখে ডিসি আরও বলেন, আমার এই বন্ধুকে যদি ভালোবেসে থাকেন, শ্রদ্ধা করে থাকেন তাহলে সে যেসব ভালো ভালো কাজের পদক্ষেপ নিয়েছে সেগুলো আপনারা ধরে রাখবেন। আর এ ব্যাপারে আমার কাছ থেকে সহযোগিতা পাবেন। নারায়ণগঞ্জের শুরু হওয়া ভালো কাজগুলো যেন চলমান থাকে এ বিষয়ে নতুন যে পুলিশ সুপার আসবেন তার কাছেও অনুরোধ থাকবে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিদায় সংবর্ধনায় উপস্থিত ছিলেন, র‌্যাব-১১ এর সিইও লে. কর্ণেল কাজী শমসের উদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাড. মাহবুবুর রহমান মাসুম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন, নূরে আলম, সুবাস সাহা, চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল প্রমূখ।

৭ নভেম্বর, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে