NarayanganjToday

শিরোনাম

মশার কয়েলে পাকানো হতো কলা


মশার কয়েলে পাকানো হতো কলা

বিষাক্ত মশার কয়েল দিয়েই পাকানো হতো কলা! এমন অভিযোগ পেয়ে অভিযান চালায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। বিষয়টির সত্যতা পেয়ে সেই কলার আড়ৎ সিলগালা করে দেন ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে।

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) দুপুরে আড়াইহাজার উপজেলার গোপালদী বাজারে চলে ওই অভিযান। এর নেতৃত্ব দেন উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. উজ্জল হোসেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. উজ্জল হোসেন বলেন, গোপালদী স্কুল রোড এলাকায় অবস্থিত মোস্তফার কলার আড়তে ক্যামিকেল দিয়ে কলা পাকানো হয়- এমন অভিযোগ আসে আমাদের কাছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালানো হয়। প্রথমে ক্রেতা সেজে জানতে চাওয়া হয় কলা কিভাবে পাকানো হয়। তখন আড়তের মালিক মোস্তফা জানান মশার কয়েল দিয়ে কাঁচা কলা পাকানো হয়। এরপর তার দোকান তল্লাশি করে অনেক ক্যামিকেলের বোতল উদ্ধার করা হয়। এ সুযোগে দোকান মালিক মোস্তফা পালিয়ে যান। তখন কলার আড়ৎটি সিলগালা করে দেয়া হয়।

১৪ নভেম্বর, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে