NarayanganjToday

শিরোনাম

সৎ ও সাহসী না হলে পেঁয়াজ-লবন সংকট দেখা দিবে : আইভী


সৎ ও সাহসী না হলে পেঁয়াজ-লবন সংকট দেখা দিবে : আইভী

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, বাংলাদেশে এখন অনেকে কোটি কোটি টাকার মালিক। কিন্তু আমাদের নৈতিক অবক্ষয় ঘটেছে। আমাদের সততার অনেক বেশি অভাব দেখা দিয়েছে। আমাদের সাহস অনেক কমে গিয়েছে।

শনিবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়কে অবস্থিত গ্রান্ড হল রেস্টুরেন্টে রোটারি ক্লাব অব নারায়ণগঞ্জ রয়েলের এক বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

আইভী বলেন, অর্থ-বিত্তের পাশাপাশি আমাদের নৈতিকতার অনেক বেশি প্রয়োজন। প্রতিবাদ করা প্রয়োজন। সাহসও অনেক বেশি দেখানো প্রয়োজন। সৎ, সাহসী না হলে প্রতিবাদি না হলে হিন্দু মুসলমান দ্বন্দ্ব লেগে থাকবে, ধনী-দরিদ্র দ্বন্দ্ব লেগে থাকবে, পিয়াজের সংকট দেখা দিবে, লবনের সংকট দেখা, চিনির সংকটও দেখা দেবে।

অনুষ্ঠানে ক্লাব সভাপতি সুব্রত কুমার সাহার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন রোটারি বাংলাদেশের ডিজি (ইলেক্ট) রুবায়েত হোসেন, রোটারি জি এস আর ইকবাল হোসেন, পি ডি জি আলমগীর হোসেন, প্রোগ্রাম চেয়ারম্যান এম সোলায়মান হোসেন।    

মেয়র আইভী সমাজের সুধীজনদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আমরা প্রত্যেকে সেলফিশ হয়ে যাচ্ছি। নিজের একটা ফ্ল্যাট করছি, ফ্ল্যাট ভালোভাবে সাজাচ্ছি, বাচ্চাদের স্কুলে নিয়ে আসছি-দিচ্ছি, গরিবদের সাথে শিশুকে মিশতে দিচ্ছিনা, এভাবে আমরা সমাজ বিচ্ছিন্ন শিশু তৈরী করছি। এতে ভবিষ্যতে শ্রেণী বৈষম্য প্রকট হবে। সামাজিক নিরাপত্তাহীনতা বাড়বে। এ অবস্থা থেকে বের হয়ে আসতে হবে।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জে যুদ্ধ করে আমাকে কাজ করতে হয়। কিন্তু এই যুদ্ধটা আমার ভালোই লাগে। খারাপ লাগেনা। বাধার মধ্যে কাজ করতে করতে অভ্যস্থ হয়ে গেছি। এখন বাধা না আসলে আর কাজ করে মজা পাই না। অনেকে নারায়ণগঞ্জকে নেগেটিভ হিসেবে জানে। কিন্তু নারায়ণগঞ্জ অত্যন্ত পজেটিভ। নেগেটিভ নারায়ণগঞ্জকে পজেটিভ করতেই হবে। আর নতুনরাই তা পারবে।

নারী নির্যাতন ও ইভটিজিং প্রসঙ্গে মেয়র আইভী বলেন, আমাদের সমাজের মেয়েরা ইভটিজিং, যৌন নির্যাতন বা কোনো ধরনের নির্যাতনের শিকার হওয়ার পর পরিবার তা লুকিয়ে রাখতে চায়, লোকলজ্জা ভয়ে। মেয়েরা যখন বাসায় এসে বলে আমার গৃহ শিক্ষক, আমার আংকেল, আমার কাজিন, রাস্তার কেউ আমাকে এটা বলেছে আমাদের মায়েরা তাদেরকে চুপ করিয়ে দেয়।

তিনি বলেন, আমার মেয়ে দিন দিন মরবে আর আমি লজ্জায় চুপ হয়ে থাকবো, এটা কেমন লজ্জা? ত্বকী হত্যার পরে ত্বকীর বাবা মা এর প্রতিবাদ করেছিলো তাই আমরা নারায়ণগঞ্জবাসি তাদের পাশে দাঁড়িয়েছিলাম। গডফাদারের সামনে দাড়িয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছি। একইভাবে আপনার মেয়ের প্রতিবাদটা আপনি করেন দেখবেন সবাই পাশে এসে দাঁড়াবে।

২৩ নভেম্বর, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে