NarayanganjToday

শিরোনাম

ফতুল্লায় তরুণীকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ, আটক ৪


ফতুল্লায় তরুণীকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ, আটক ৪

ফতুল্লায় কয়েল কারখানার এক ষোড়শী শ্রমিক গষধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার (৯ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে ফতুল্লার বটতলা শাহাজালাল রোলিং মিল এলাকার মসজিদ গলিতে এ ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণের শিকার ওই ষোড়শী বটতলা এলাকার আব্দুল কাদিরের কয়েল কারখানা শ্রমিক হিসেবে কাজ করে। এবং সদর উপজেলার গোগননগর ফকির বাড়ি এলাকায় ভাড়ায় বসবাস করে।

এদিকে ধর্ষণের এ ঘটনার চার ঘণ্টার মধ্যে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত চারজনকে আটক করেছে। তারা হলেন, রাসেল, আলামিন, রবিন ও সুমন।

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের ওসি তদন্ত মিজানুর রহমান এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, আব্দুল কাদিরের কয়েল কারখানায় শ্রমিকের কাজ করে ওই তরুণী। সন্ধ্যয় ছুটির পর মালিকের সাথে বাড়ি ফেরার পথে তিনজন সহযোগি নিয়ে তাদের পথ রোধ করে রাসেল। পরে রাসেল কয়েল কারখানা মালিককে মারধর করে তাড়িয়ে দিয়ে ওই তরুণীকে টাকার বিনিময়ে সাথে থাকা আলামিন, রবিন ও সুমন নামে তিন যুবকের হাতে তুলে দেয়। পরে ওই তিনজন ষোড়শীকে একটি নির্জন বাড়িতে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

ওসি তদন্ত আরও বলেন, মারধরের শিকার কয়েল কারখানার মালিক কাদির থানায় বিষয়টি জানালে অভিযান চালিয়ে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে এবং অভিযুক্ত চারজনকে আটক করে।

১০ ডিসেম্বর, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে