NarayanganjToday

শিরোনাম

ঈদ জামাত : কতটা সফল হলেন শামীম ওসমান?


ঈদ জামাত : কতটা সফল হলেন শামীম ওসমান?

সাংসদ শামীম ওসমানের তত্বাবধায়নে প্রথমবারের মতো নারায়ণগঞ্জে অনুষ্ঠিত হয়েছে ঈদ জামাত। ঈদুল আযাহ্ উপলক্ষে প্রথমবারের মতো এই আয়োজন করা হয় ইসদার এলাকায় অবস্থিত নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় ঈদগাহ এবং এর দক্ষিণ পার্শ্বে অবস্থিত শামসুজ্জোহা স্টেডিয়ামে।

পূর্ব নির্ধারণ করা বুধবার (২২ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে এই বৃহৎ ঈদ জামাতের নামাজ শুরু হয়। এতে ঈমামতি করেন নগরীর নূর মসজিদের ঈমাম ও খতিব মাওলানা আব্দুল সালাম।

এদিকে ঈদ জামাতের আয়োজনকারিন প্রস্তুতিমূলক সভায় শামীম ওসমান আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেছিলেন এই জামাত হবে দেশের সর্ববৃহৎ। এখানে কম করে হলেও দেড় লাখ লোকের সমাড়ম হবে। আর এ কারণে তিনি এই জামাতের নামকরণও করেছিলেন ‘দেড়লাকিয়া’। সর্বশেষ তিসি মঙ্গলবার ঈড় জামাতের জন্য নির্ধারিত স্থান পরিদর্শনে গিয়েও এমন আশা ব্যক্ত করেছিলেন।

তবে, শেষতক এবারের ঈদ জামাতে দেড় লাখ লোক সমাগম ঘটাতে পারেননি সাংসদ শামীম ওসমান। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাদের ভেদাভেদ ভুলে একত্রিত হয়ে ঈদের জামাত আদায়ের আহ্বানও করেছিলেন এই সাংসদ। কিন্তু তাঁর এই আহ্বানে অন্যসব রাজনৈতিক দলের নেতারা সাড়া দেয়নি।

এদিকে আশানুরূপ দেড়লাখ লোক সমাগম না ঘটলেও শামীম ওসমান অল্প সময়ের ব্যবধানে এই ঈদ জামাতের আয়োজন করে সফলই হয়েছেন। এমন মতামত দিয়েছেন অনেকে। তবে, কারো কারো কাছে আংশিক সফল হয়েছেন তিনি। কেননা, তিনি যেমন চেয়েছিলেন তেমনটি সফল করতে পারেননি বলেই মত দিয়েছেন অনেকে।

অপরদিকে ঈদ জামাতের সময় নির্ধারণ করা হয়েছিলো সকাল সাড়ে ৮টার দিকে। তবে এর পূর্বে তথা ৭টার দিকেই আশপাশের এলাকা থেকে লোকজন ছুটে আসতে থাকেন। সকাল ৮ টা এবং সোয়া আটটার মধ্যে কেন্দ্রীয় ঈদগাহ এবং দিক্ষণ পার্শ্বে অবস্থিত শামসুজ্জোহা স্টেডিয়াম লোকে লোকারণ্য হয়ে যায়। ধারণ করা হচ্ছে বর্বসাকুল্য ৪০ থেকে ৪৫ হাজার মুসল্লির সম্মিলনে এবারের ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে অল্প সময়ের মধ্যে এই আয়োজন সম্পন্ন করাটাই ছিলো বড় চ্যালেঞ্জ। আর সেই চ্যালেঞ্জটিই গ্রহণ করেছিলেন শামীম ওসমান। ফলে আশানুরূপ সেই দেড়লাখ না হলেও অনেকটাই সফল হয়েছেন এই সাংসদ।

ঈদ জামাতে শামীম ওসমান ছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. রেজাউল বারী, নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাড. ওয়াজেদ আলী খোকন, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি খালেদা হায়দার খান কাজল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাড. হাসান ফোদৌস জুয়েল, শামীম ওসমানপুত্র অয়ন ওসমান, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী, গ্রীণ ফর পিসের নির্বাহী পরিচালক আরিফ মিহির প্রমূখ।

২২ আগস্ট, ২০১৮/এসপি/এনটি

উপরে