NarayanganjToday

শিরোনাম

সিদ্ধিরগঞ্জে আ.লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, বাইকে আগুন


সিদ্ধিরগঞ্জে আ.লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ, বাইকে আগুন

সিদ্ধিরগঞ্জে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তিনটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয়া হয়। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি পশ্চিমপাড়া পুকুরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ দুই পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সংঘর্ষে আহতরা হলেন- মনির, মোহন, নিজাম, সজীব, বাবু, সাইদুল, বিল্লাল, আশরাফ, রুবেল ও মুন্না। আহতদের স্থানীয় ক্লিনিক ও হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে যুবদল থেকে সদ্য আওয়ামী লীগে যোগদানকারী নাজিম উদ্দিন নাজুর সঙ্গে যুবলীগ নেতা রাসেলের বিরোধ চলছিল। মঙ্গলবার রাতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াছিন মিয়ার ব্যক্তিগত কার্যালয়ে দেখা করতে আসেন নাজিম উদ্দিনর নাজু ও তার সহযোগীরা।

ওই কার্যালয়ে আগে থেকেই অবস্থান করছিলেন যুবলীগ নেতা রাসেল ও তার সহযোগীরা। এ সময় পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে রাসেলের সঙ্গে নাজিমের কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে হাতাহাতির শুরু হয়। পরে একপক্ষ আরেকপক্ষের ওপর দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র, লাঠিসোঠা নিয়ে ঝাপিয়ে পড়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াছিন মিয়া বলেন, আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে লোকজন নিয়ে আসায় যুবলীগ নেতা রাসেলের কর্মী-সমর্থকদের বাধা দিয়ে আসছিল নাজু গ্রুপের লোকজন। বিষয়টি রাসেল মঙ্গলবার রাতে নাজুকে জিজ্ঞাসা করলে নাজু গ্রুপের সমর্থকরা দলবল নিয়ে এসে রাসেল গ্রুপের লোকজনের ওপর হামলা চালায়। এ সময় তারা তিনটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়।

তিনি আরও বলেন, নাজিম উদ্দিন নাজু সদ্য আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন বলে শুনেছি।

এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর শাহিন পারভেজ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ হয়েছে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

৫ ডিসেম্বর, ২০১৮/এসপি/এনটি

উপরে