NarayanganjToday

শিরোনাম

শাহনাজের সেই স্কুটি নারায়ণগঞ্জ থেকে উদ্ধার, আটক ১


শাহনাজের সেই স্কুটি নারায়ণগঞ্জ থেকে উদ্ধার, আটক ১

প্রশাসনের ব্যাপক তৎপরতায় অতিদ্রুততম সময়ের মধ্যে শাহনাজ আক্তার পুতুলের চুরি হওয়া সেই স্কুটি মোটরবাইকটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকা থেকে শাহনাজের বাইকটি উদ্ধার করা হয়। এসময় আটক করা হয়েছে বাইক চোর জনিকে।

তেজগাঁও জোনের সহকারী কমিশনার আবু তৈয়ব মো. আরিফ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, রাতে অভিযান চালিয়ে নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকা থেকে স্কুটি মোটরবাইকটি উদ্ধার করা হয়। এ সময় প্রতারক জনিকে আটক করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, চুরি হওয়া স্কুটি মোটরবাইক ও আটক জনিকে ঢাকা এনে শেরেবাংলা নগর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

গতকাল (মঙ্গলবার) দুপুরে চাকরি দেওয়ার কথা বলে রাজধানীর খামারবাড়ি থেকে স্কুটি বাইকটি নিয়ে পালিয়ে যায় জনি নামের ওই যুবক। পরে ওই ঘটনায় শেরেবাংলা নগর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন শাহনাজ। জিডি নম্বর ৯১১।

জিডিতে উল্লেখ করা হয়, স্কুটিটির মূল্য ৫৮ হাজার টাকা। জনি (২৭) নামে এক পাঠাওচালকের সঙ্গে পরিচয় হলে সে তাকে (শাহনাজ আক্তার) চাকরি দেওয়ার কথা বলে। মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে খামারবাড়িতে চাকরির জন্য আসতে বলে। তবে চাকরির জন্য যার সাথে দেখা করানোর কথা ছিল সে আসেনি।

জনি তার (শাহনাজ আক্তার) সঙ্গে স্কুটিতে করে এয়ারপোর্টসহ বিভিন্ন স্থানে ঘুরে শেরেবাংলা নগর থানার রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তায় চা পান করতে যায়। চা পান করার একপর্যায়ে শাহনাজকে স্কুটি চালানোর বিষয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন জিজ্ঞেস করে জনি। স্কুটি চালিয়ে দেখতে চায়। শাহনাজ তাকে স্কুটির চাবি দিলে জনি স্কুটি নিয়ে চলে যায়। এরপর তার কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এক মাস ধরে মোবাইল উবারের মাধ্যমে মোটরবাইক চালাচ্ছেন শাহনাজ আক্তার। নারী হয়ে পুরুষদের নিয়ে স্বাচ্ছন্দ্যে রাইড দেয়ায় সম্প্রতি ফেসবুক ও বিভিন্ন পত্রিকায় ইতিবাচক রিপোর্ট হয় তাকে নিয়ে।

এদিকে শাহনাজারে বাইকটি চুরি হয়ে যাওয়ার পর এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়ে। অনলাইন অ্যাক্টিভিসটরা প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে নিজেদের মতো করে পোস্ট দিতে থাকেন। সেসব পোস্টে একটাই অনুরোধ ছিলো শাহনাজের বাইকটি উদ্ধারের।

১৬ জানুয়ারি, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে