NarayanganjToday

শিরোনাম

‘অগো ফাঁসি দ্যান, না পারলে আপনেরা কিয়ের সরকার?’


‘অগো ফাঁসি দ্যান, না পারলে আপনেরা কিয়ের সরকার?’

হোসেয়ারী শ্রমিক মিরাজুল রহমান সিয়ামের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে শহরে মানববন্ধন করছেন নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী। বুধবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুরের নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে নিহত সিয়ামের পিতা সোহেল মিয়া ছেলে হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবি করে প্রশাসনের কাছে আহ্বান রাখেন।

তিনি বলেন, আমার ছেলের কোনো দোষ ছিলো না। সে কোনো বাজে কাজেও যেত না। কেবলমাত্র তার ব্রেসলেট সে ফেরত চাওয়াতে তাকে হত্যা করেছে খুনীরা। আমি এর দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই। প্রশাসনের কাছে আমার দাবি হত্যাকারীরা যান কোনো ভাবেই রক্ষা না পায়।

সিয়ামের নানী বলেন, আমি আর কিচ্ছু চাই না। আমার নাতিরে যারা মারছে তাদের ফাঁসি চাই। সরকারের কাছে আমার একটাই আবদার। আমার নাতির হত্যকারীদের ফাঁসি দেন। তা দিতে না পারলে আপনেরা কিয়ের সরকার?

প্রসঙ্গত, একটি ব্রেসলেটকে কেন্দ্র করে পাঁচ বন্ধুর হাতে হত্যার শিকার হন মিরাজুল রহমান সিয়াম নামে হোসেয়ারী শ্রমিক। এর দ্বন্দ্বে সিয়ামকে হত্যা করে মরদেহ ফেলে যায় ডিআইটি কলনোরীর পিছন দিকে। সোমবার (২৮ জানুয়ারি) সকালের দিকে সিয়ামের মরদেহ উদ্ধার করে সদর থানা পুলিশ।

সিয়াম ফতুল্লার দেওভোগ লিচুবাগান এলাকার মসজিদ গলিতে অবস্থিত হামিদার বাড়ির ভাড়াটিয়া সোহেল মিয়ার ছেলে। এবং শহরের উকিলপাড়া এলাকায় অবস্থিত আজিজুর রহমানের হোসিয়ারীর শ্রমিক।

এ ঘটনায় দুপুরের নিলয় নামে এক ঘাতককে দেওভোগ চেয়ারম্যান বাড়ির কাছ থেকে সদর মডেল থানা পুলিশ নিলয়কে আটক করে। নিলয় গাইবান্ধা জেলার মনিরুল ইসলামের ছেলে এবং দেওভোগ চুনকা চেয়ারম্যানের পুরতান বাড়ির ভাড়াটিয়া।

এদিকে মঙ্গলবার সিয়াম হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী প্রদান করেছেন।

৩০ জানুয়ারি, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে