NarayanganjToday

শিরোনাম

ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করলেন গোলাম দস্তগীর গাজী


ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করলেন গোলাম দস্তগীর গাজী

সারাদেশের ন্যায় নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পালিত হয়েছে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন। এতে ৬ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সী সব শিশুকে জাতীয় ভিটামিন 'এ' ক্যাম্পেইনের আওতায় ভিটামিন ‘এ’  প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়।

শনিবার (৯ ফেব্রুয়ারী) সকালে রূপগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার রূপসী এলাকার গাজী ভবনে এই ভিটামিন 'এ' প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করেন, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক।

এ সময় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেন, "প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন পালিত হচ্ছে। ভিটামিন ‘এ’ শিশুর রাতকানা রোগ প্রতিরোধ করে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং শিশুর মৃত্যুর ঝুঁকি কমায়।"

তিনি বলেন, অপুষ্টিজনিত অন্ধত্ব প্রতিরোধে সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা ছিল রাতকানার শতকরা হার ১ ভাগের নিচে নামিয়ে আনা। ইতোমধ্যে বাংলাদেশে সে লক্ষ্য পুরোপুরি অর্জিত হয়েছে। সর্বশেষ জরিপ অনুযায়ী বাংলাদেশে বর্তমানে ভিটামিন ‘এ’ অভাবজনিত রাতকানার হার শতকরা ০.০৪ ভাগ। তাছাড়া ভিটামিন ‘এ’ শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে এবং শিশুমৃত্যুর ঝুঁকি কমায়। অপুষ্টিজনিত অন্ধত্ব প্রতিরোধে এই অর্জিত হার ধরে রাখা অথবা তা শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা এবং শিশুর রোগ প্রতিরোধে ক্ষমতা বৃদ্ধি করে শিশুমৃত্যুর ঝুঁকি কমানোর লক্ষ্যে বছরে ২ বার ৬-১১ মাস বয়সী শিশুদের ১টি নীল রঙের (১ লক্ষ আই,ইউ) এবং ১২-৫৯ মাস  বয়সী শিশুদের ১টি লাল রঙের (২ লক্ষ, আই,ইউ) উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানোর কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া একান্ত জরুরী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, তারাবো পৌরসভার সচিব তাজুল ইসলাম, তারাবো পৌরসভার স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আব্দুল মতিন সাউদসহ অনেকে।

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে