NarayanganjToday

শিরোনাম

রাজবাড়ীতে মেয়র আইভী, শ্বশুরবাড়িতে আনন্দের বন্যা


রাজবাড়ীতে মেয়র আইভী, শ্বশুরবাড়িতে আনন্দের বন্যা

নারায়ণগঞ্জ শহরকে পরিকল্পিত নগর হিসেবে গড়ে তোলার জন্য কাজ করে যাচ্ছে সিটি করপোরেশন, এমনটাই জানিয়েছেন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। একই সাথে তিনি জানিয়েছেন, এ জন্য সরকারও আমাদেরকে সহযোগিতা করছে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী রাজবাড়ীতে তার শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে আসেন ৯ ফেব্রুয়ারি রাতে। রাজবাড়ী শহরের সজ্জনকান্দায় (সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের পিছনে) শ্বশুর মরহুম কাজী আবু সালেহর বাড়িতে এসে পৌঁছান। এসময় তার সাথে ছিলেন তার দুই সন্তান সাদমান হায়াৎ সীমান্ত ও কাজী সারজিন হায়াৎ অনন্ত।

শ্বশুরবাড়িতে পৌঁছালে মেয়রকে তার স্বামী কাজী আহসান হায়াৎ সেতুর বন্ধু জেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ইঞ্জিঃ আমজাদ হোসেন, মো. হাসান উজ্জামান, কাী সদরুল আলম মিন্টু, প্রদীপ কুমার শীল, সৈয়দ মো. ইকবাল, কাজী আহসান হাবীব মিতু, কাজী বদরুর আলম পিন্টুসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ যুবগলী, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

এদিকে মেয়রের আগমেন স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা তার শ্বশুরবাড়িতে ছুটে গেলে তাদের সাথে খোলামেলা কথা বলেন আইভী। এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীর ক্ষমতায়নকে এগিয়ে নিতে কাজ করছেন। প্রতিটি ক্ষেত্রেই নারীর এগিয়ে যাচ্ছে। কোনো ক্ষেত্রেই তার আজ পিছিয়ে নেই।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন সম্পর্কে মেয়র আইভী বলেন, একটি সিটি করপোরেশনের নগরায়নের জন্য যা যা করা প্রয়োজন সেগুলো নিয়েই আমরা কাজ করছি। আমাদের অনেকগুলো প্রজেক্ট জমা দেওয়া আছে। পাশ হয়ে যাওয়া প্রজেক্টগুলোর কাজ চলছে। সবচেয়ে বড় প্রজেক্ট হলো শীতলক্ষ্যা নদীর উপরে একটি ব্রিজ, যা গত একনেক সভায় পাশ হয়েছে। এছাড়াও অন্যান্য কাজের মধ্যে রাস্তা-ঘাট, ড্রেন, খাল খনন, পুকুর সংস্কার, খেলার মাঠ উন্নয়নে কাজ চলছে।

এদিকে মেয়রের আগমনে তার শ্বশুরবাড়িতে আনন্দের বন্যায় বইছে। পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকেও মেয়রকে এক নজর দেখতে অনেকেই ছুটে আসছেন। মেয়রের আগমনের সংবাদে শ্বশুরবাড়ির দিককার আত্মীয় স্বজনেরাও এ বাড়িতে এসে উপস্থিত হয়েছে।

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে