NarayanganjToday

শিরোনাম

সিদ্ধিরগঞ্জে স্বামী-সন্তান তুচ্ছ করে ‘পরকীয়ায়’ ঘর ছাড়লেন নিপা


সিদ্ধিরগঞ্জে স্বামী-সন্তান তুচ্ছ করে ‘পরকীয়ায়’ ঘর ছাড়লেন নিপা

গাজিপুরের একটি গার্মেন্টের প্রোডাক্টশন ম্যানেজার জামাল সরদার। স্ত্রী ও দুই মেয়েকে নিয়ে তিনি থাকেন সিদ্ধিরগঞ্জের পূর্ব নিমাইকাসী মাদানী নগর নূরবাগ এলাকায়। নয়দিন আগে এই জামাল সরদার তার স্ত্রীর হাতে বেতনের ৭০ হাজার টাকা তুলে দেন। এদিনই তিনি ভোরে তার কর্মস্থলে চলে যান। সেখান থেকেই তিনি টের পান তার স্ত্রীর মোবাইল ফোন বন্ধ!

জামাল সরদারের ভাষ্য মতে, তিনি গাজিপুর থেকেই তার ছোট ভাইকে তার সিদ্ধিরগঞ্জের ভাড়া বাসায় পাঠালে জানতে পারেন তাদের ফ্ল্যাটে তালা। কোথাও নেই স্ত্রী ফরিদা বেগম নীপা এবং তার দুই মেয়ে আশা মনি (১১), প্রিয়া মনি (৪)সহ ভায়রা মেয়ে সুমাইয়া (১৪) ও শালার ছেলে আজিম (৭)।

এ ঘটনায় জামাল সরদার সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরীও করেন। তার ডায়েরীটি ছিলো নিখোঁজের। ঘটনার চার পাঁচদিন পেরিয়ে গেলে ব্যাপারটি জানাজানি হয়। ততক্ষণ পর্যন্ত সবাই জানতেন তারা পাঁচজন নিখোঁজ হয়েছেন। কিন্তু থলের বিড়াল বেরিয়ে আসে ঘটনার নয়দিন পর যখন পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই গার্মেন্ট কর্মকর্তার দুই মেয়েসহ চারজনকে ঢাকা থেকে উদ্ধার করে।

নিপা পালানোর আগে তার দুই মেয়ে এবং দুই ভাগ্নে ভাগ্নিকে বিভিন্ন মাদরাসা ও আবাসিক স্কুলে রেখে যান। ফলে ধারণা করা হচ্ছিলো, অনেক আগের থেকেই পালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা তারা কষে রেখেছিলেন। সময় সুযোগ বুঝে সেদিন সকালেই পালিয়েছেন।

এঘটনার বিস্তারিত জানাতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ। বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন হয়।

পুলিশ সুপার জানান, নিখোঁজ নয়, পরকীয়ার টানেই ঘর ছেড়েছেন সিদ্ধিরগঞ্জের গার্মেন্ট কর্মকর্তা জামাল সরদারের স্ত্রী ফরিদা বেগম নিপা। তিনি তার পরকীয়া প্রেমিক সুমন নামের এক যুবকের সাথে পালিয়েছেন।

তিনি জানান, গার্মেন্ট কর্মকর্তার স্ত্রী নীপা সুমন নামের এক যুবকের সাথে পালিয়ে গেছেন। তাদের মধ্যে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। ঘর থেকে যাওয়ার সময় নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কারও নিয়ে গেছে তিনি। তাদের উদ্ধারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

এ ঘটনায় জামাল সরদার সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন বলে নিশ্চিত করেন পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ।

এদিকে কে এই সুমন? তা এখনও বিস্তারিত জানা যায়নি। তবে, পুলিশ বলছে খুব শিগগিরই তাদের উদ্ধার করা হবে। পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে