NarayanganjToday

শিরোনাম

টাকা ফেরত চাওয়ায় মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ


টাকা ফেরত চাওয়ায় মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

সিদ্ধিরগঞ্জে কর্মচারী কর্তৃক মালিকের ব্যবসার ৫২ লাখ টাকা আত্বসাতের অভিযোগ উঠেছে। নাসিক ১নং ওয়ার্ডস্থ পাইনাদী পূর্বপাড়া এলাকায় ‘আমানত বহুমুখী সমবায় সমিতি’র কর্মচারী রিপন, লিটন ও সহযোগী মিলন ওরফে কবুতর মিলন এই অর্থ আত্বসাৎ করেছে বলে অভিযোগ জানিয়েছেন সমিতির মালিক রজ্জব আলী। 

এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় সাধারন ডায়েরীও করেছেন তিনি। 

পরে স্থানীয় ভাবে শালিসের সিদ্ধান্ত মোতাবেক অর্থ ফেরত না দিয়ে মামলাসহ নানাভাবে হয়রানী করছে বলেও দাবি করেছেন ভূক্তভোগী রজ্জব আলী।

‘আমানত বহুমুখী সমবায় সমিতি’র পরিচালক রজ্জব আলী জানান, তিনি লেখা পড়া করেননি। ২০১৭ সালে সরল বিশ্বাসে পাইনাদী পূর্বপাড়া এলাকার মোঃ আলাউদ্দিনের ছেলে রিপন ও মিলন ওরফে কবুতর মিলনকে কর্মচারী হিসেবে নিয়োগ দেন তিনি। 

বিগত দুই বছর ধরে কর্মচারীরা না জানিয়ে নামে-বেনামে বিভিন্ন জায়গায় ঋন প্রদানের কথা বলে ৫২ লক্ষ ৮৭ হাজার ৫’শত ৯২ টাকা হাতিয়ে নেয়। এসময় রিপন ও মিলন ওরফে কবুতর মিলন তার ভাই লিটনকেও ৫ লাখ টাকা ঋন প্রদান করেন।  

টাকা আত্মসাতে ঐ ৩ ভাইকে সহযোগিতা করেন তাদের পিতা মোঃ আলাউদ্দিন ও তাদের আত্মীয় মোঃ নবী হোসেন। 

তাদের কাছ থেকে রজ্জব আলী ব্যবসার টাকা ফেরত চাওয়ায় তারা উল্টো আদালতে মিথ্যা মামলা দিয়ে নানাভাবে হয়রানি করছে। 

এ বিষয়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও কাউন্সিলরের কাছে জানালে শালিসের মাধ্যমে রজ্জব আলীকে ৩০ লাখ টাকা দেওয়ার জন্য রাজি হয়। 

শালিসে গৃহীত সিদ্ধান্ত মোতাবেক সময় অনুযায়ী গত বছরের অক্টোবরের ১১ তারিখের মধ্যে তারা তাকে (রজ্জব আলী) কোন টাকা পরিশোধ করেনি।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রজ্জব আলীর বিরুদ্ধে চলতি বছরের ৩০ এপ্রিল দোকানের মালামাল আটকের বিষয়ে একটি শালিশে মোস্তফা নামে এক ব্যক্তির উপর আক্রমণের অভিযোগে আরমান মিজি বাদী হয়ে 
আদালতে মামলা করেন (পিটিশন মামলা নং ৮৬/১৯)। 

এর আগে গত বছরের ৩০ আগষ্ট রজ্জব আলী ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে   কর্মচারী রিপনকে মারধরের অভিযোগ এনে রিপনের পিতা আলাউদ্দিন মিয়া বাদী হয়ে রজ্জব আলীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন (সিআর মামলা নং ৮৯/১৯)।  
১৯ মে,২০১৯/এমএ/এনটি
 

উপরে