NarayanganjToday

শিরোনাম

ল্যাপটপ ও ঈদ সামগ্রী নিয়ে প্রতিবন্ধীর বাড়িতে এমপি খোকা!


ল্যাপটপ ও ঈদ সামগ্রী নিয়ে প্রতিবন্ধীর বাড়িতে এমপি খোকা!

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায় রিনা আক্তার নামে এক অসহায় পিতৃহারা শারীরিক প্রতিবন্ধী ও মেধাবী কলেজ ছাত্রীর বাড়িতে ল্যাপটপ ও ঈদ সামগ্রী নিয়ে উপস্থিত হয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা। 

রবিবার দুপুরে উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের আনন্দবাজার এলাকায় রিনা আক্তারের বাড়িতে ওই সমস্ত সামগ্রী নিয়ে তিনি আকষ্মিকভাবে হাজির হন। তার এম আকষ্মিক আগমনে রিনা আক্তার সহ তাঁর পরিবারের লোকজন বিষ্মিত হয়ে পড়েন। পরে আশপাশের এলাকালায় এ খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকার অনেক সাধারণ মানুষ সে বাড়িতে এসে ভীড় করেন। পরে রিনা ও তার পরিবার সহ গ্রামবাসী অশ্রুসিক্ত নয়নে সাংসদ খোকাকে অভিনন্দন জানায়।

জানা গেছে, উপজেলার আনন্দবাজার এলাকার মৃত আব্দুস সোবহানের চার সন্তানের মধ্যে মেঝ সন্তান রিনা আক্তার। জন্মগত শারীরিক প্রতিবন্ধী রিনা আক্তার এ বছর সোনারগাঁ কাজী ফজলুল হক উইমেন্স কলেজ থেকে কমার্স বিভাগে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। সম্প্রতি এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা এই অসহায় মেধাবী শিক্ষার্থীর মায়ের কোলে চড়ে কলেজে আসা যাওয়া ও পরীক্ষায় অংশগ্রহণের খবর জানতে পারেন। পরে রবিবার দুপুরে তিনি রিনা আক্তারের জন্য একটি এইচপি ব্যান্ডের দামি ল্যাপটপ, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নতুন জামা কাপড়, মায়ের জন্য শাড়ি, সেমাই, চিনি, তেল ও সোনারগাঁয়ের সুস্বাদু লিচু সহ বিভিন্ন ঈদ সামগ্রী নিয়ে তার বাড়িতে হাজির হন। 

এ প্রসঙ্গে সাংসদ খোকা বলেন, শারীরিক প্রতিবন্ধী হয়েও রিনা যেভাবে কষ্ট করে লেখাপড়া করছে এতে আমি তাকে নিয়ে গর্ববোধ করি। রিনাকে কেউ যেন পিতৃহারা না বলে। আজ থেকে লিয়াকত হোসেন খোকা তার বাবা ও ডালিয়া তার মা। সে যতদূর লেখাপড়া করতে চায় আমি তাকে পড়াবো। তার সম্পূর্ণ দায়দায়িত্ব আমার। 

এ ঘটনার অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে প্রতিবন্ধী রিনা আক্তার বলেন, এমপি সাহেব এভাবে আমাদের বাড়িতে ল্যাপটপ ও ঈদ সামগ্রী নিয়ে আসবেন তা আমরা কল্পনাও করতে পারিনি। আমার যে একটা ল্যাপটপের শখ ছিলো তা তিনি কিভাবে জেনেছেন তাও আমার জানা নেই। তিনি সোনারগাঁয়ের গর্ব। আমরা মন থেকে তার জন্য দোয়া করি। 
১৯ মে,২০১৯/এমএ/এনটি  
 

উপরে