NarayanganjToday

শিরোনাম

শহরে অতি সচেতন জনতা ‘ছেলে ধরা’ ভেবে গণধোলাই দিলো পিতাকে!


শহরে অতি সচেতন জনতা ‘ছেলে ধরা’ ভেবে গণধোলাই দিলো পিতাকে!

নিজের তিন ছেলেকে নিয়েই রিকশাযোগে যাচ্ছিলেন এক বাবা। পথিমধ্যে ছেলেদের অবাধ্যতা তিনি কিছুটা বকাঝকা করেন। এতেই কান্নাজুড়ে দেয় শিশুরা। আর শিশুদের এমন কান্না শুনে মুহূর্তেই জড়ো হয়ে যায় বেশ কিছু পথচারী। তারা রিকশাটিকে থামায় এবং ছেলে ধরা ভেবে অমনিই শুরু করেন উত্তম মাধ্যম। তাদের সাথে আরও অসংখ্য ব্যক্তি এসে ‘ধর...ধর’ করে ঝাঁপিয়ে পড়ে ওই বাবার উপর।

উত্তেজিত জনতা বাবাকে বেধড়ক গণধোলাই দিয়ে তিন শিশুকে উদ্ধার করে এবং অত্যন্ত সচেতন জনতার মতো তাদেরকে নিয়ে যায় স্থানীয় পুলিশ বক্সে। পরে সেখানে কথিত ‘ছেলে ধরা’ ওই ব্যক্তিটিকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করলে জানা যায়, সে ছেলে ধরা নয়, এই তিন শিশুর পিতা। শিশুগুলোও জিজ্ঞাসাবাদে একই কথা জানায়।

বুধবার (১০ জুলাই) বিকেল ৪টার দিকে শহরের দুই নম্বর রেল গেইটের ফজর আলী ট্রেড সেন্টারের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহাদাৎ হোসেন বলেন, ওই তিন শিশু বাসায় না জানিয়ে শহরের ৫নং সার ঘাটে গোসল করতে আসে। তখন এক শিশুর অভিভাবক তদের খুঁজে বাসায় নিয়ে যায়। বাসায় না বলে আসার কারণে তাদেরকে বকাঝকা করে বাবা। তাই বাচ্চাদের কান্না দেখে এগিয়ে আশেপাশের জনগণ। পরবর্তীতে অপহরনকারী ভেবে ধরিয়ে দেয় পুলিশের কাছে। পরে সত্যতা যাচাইয়ের পর তাকে আমরা সসম্মানে ছেড়ে দিই।

১০ জুলাই, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে