NarayanganjToday

শিরোনাম

স্কুল ছাত্রীর পিতার অভিযোগে প্রেমিক ‘ধর্ষক’ গ্রেফতার


স্কুল ছাত্রীর পিতার অভিযোগে প্রেমিক ‘ধর্ষক’ গ্রেফতার

প্রথমে পরিচয় এরপর প্রণয়। কথা ছিলো একে অপরকে বিয়ে করবে। ফলে প্রেমিক যুবকের সাথে নানা স্থানে ডেটিং করা শুরু করে সপ্তম শ্রেণীর স্কুল ছাত্রী (১৬)। এরমধ্যে কয়েক দফা তাদের সাথে শারীরিক সম্পর্কও হয়।

এক পর্যায়ে স্কুল ছাত্রী যখন বিয়ের জন্য তার প্রেমিক উজ্জ্বলকে চাপ দিতে শুরু করে তখনই ঘটে বিপত্তি। কিছুতেই সে বিয়ে করবে না। এ ঘটনায় বাধ্য হয়ে স্কুলছাত্রীর পিতা ধর্ষণ অভিযোগ এনে প্রেমিক ওবায়দুল হক ওরফে উজ্জ্বলের বিরুদ্ধে ঠুকে দেন মামলা। পুলিশও অভিযোগ পেয়ে ২৪ আগস্ট দুপুরে গ্রেফতার করে প্রেমিক যুবক উজ্জ্বলকে।

ঘটনাটি ঘটেছে সোনারগাঁ উপজেলার বারদী এলাকায়। সে উপজেলার বারদী এলাকার চান্দেরপাড়া গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে। আর ভুক্তভোগি মেয়েটি বারদী এলাকার স্থানীয় একটি স্কুলের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী উপজেলার বারদী এলাকার স্থানীয় একটি হাই স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী। স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে ওই এলাকার উজ্জ্বলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার।

একপর্যায়ে স্কুলছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে উজ্জ্বল। ১৫ মে সন্ধ্যায় উপজেলার দৌলরদী পরাননগনর গ্রামের শাহ আলমের বাড়িতে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়। পরে স্কুলছাত্রী বিয়ের জন্য চাপ দিলে অস্বীকৃতি জানায় উজ্জ্বল। এরপর স্কুলছাত্রী বিষয়টি তার পরিবারকে জানায়। শনিবার স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে উজ্জ্বলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সোনারগাঁ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। ধর্ষক উজ্জ্বলকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

২৫ আগস্ট, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে