NarayanganjToday

শিরোনাম

জামাই-শাশুড়ির পাল্টাপাল্টি অভিযোগ, হদিস মিলেনি সেই গৃহবধূর


জামাই-শাশুড়ির পাল্টাপাল্টি অভিযোগ, হদিস মিলেনি সেই গৃহবধূর

স্বামীর অত্যাচার থেকে রেহাই পেতে ১ সন্তানের জননী বিথী বেগম অজানার উদ্দেশ্যে পালিয়ে গেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন গৃহবধূর মা। গত বুধবার সকাল ১১টায় বন্দর থানার মদনগঞ্জ পিএম রোড কাঠপট্টিস্থ তার স্বামী বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় ওই গৃহবধূ।

১ সন্তানের জননী কোন খোঁজ-খবর না পেয়ে এ ব্যাপারে তার মা বাদী হয়ে স্বামী ও শ্বশুড়বাড়ি লোকজনদের বিরুদ্ধে বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

নিখোঁজ গৃহবধূর মা বন্দর প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের জানান, গত ৫ বছর পূর্বে আমার মেয়ে বিথী বেগম ভালোবেসে একই থানার মদনগঞ্জ পিএমরোড এলাকার সালাউদ্দিন সরদারে ছেলে রিপনকে বিয়ে করে। বিয়ের পর তাদের সংসারে আলিফ (৪) নামে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। সন্তান জন্ম হওয়ার পর তাদের ভালোবাসা আমরা মেনে নেই। এবং মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে যৌতুক লোভী স্বামীকে নগদ ২ লাখ টাকা ও ঘরের আসবাবপত্র দিই। দিন যতই  যাচ্ছে জামাতা অসৎ লোকজনদের সাথে চলাফেরা কারনে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে। প্রায় সময় আমার মেয়ের কাছে নেশা সেবনের টাকা চায়। টাকা না দিলে রিপন আমার মেয়েকে মারধর করত।

এর ধারাবাহিকতায় গত বুধবার সকালে রিপন আমার মেয়ের নিকট পুনরায় টাকা দাবি করে। আমার মেয়ে টাকা দিতে পারবে না বলে জানালে সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার মেয়ে বেদম মারপিট করে বাড়ী থেকে বের করে দেয়। আমার মেয়ে মনের ক্ষোভে আমার কাছে না এসে অজানার উদ্দেশে হারিয়ে যায়। আমি তাকে খোঁজার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছি। এবং এ ব্যাপারে আমি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।

এর আগে রিপন দাবি করেছেন, তার স্ত্রী জমি কেনার ২ লাখ টাকা নিয়ে ঘর থেকে পালিয়ে গিয়েছেন। এ ঘটনায় সে বন্দর থানা লিখিত অভিযোগও করেছেন। রিপন পেশায় একজন দিনমজুর।

২৫ আগস্ট, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে