NarayanganjToday

শিরোনাম

গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ৬ তলা ভবনসহ শতাধিক স্থাপনা


গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ৬ তলা ভবনসহ শতাধিক স্থাপনা

অবৈধ ভাবে শীতলক্ষ্যা নদীর তীর দখল করে গড়ে উঠা শতাধিক স্থাপনা উচ্ছেদ করেছেন বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দর কর্তৃপক্ষ। এই উচ্ছেদ থেকে বাদ যায় ৬ তলা বিশিষ্ট একটি ভবনও। অবৈধ ভাবে গড়ে উঠা এই ভবনটি গুঁড়িয়ে দিয়েছেন উচ্ছেদকারী দল।

এছাড়াও নদী ভরাট করায় অ্যাসকোয়ার গার্মেন্টসকে নগদ ৫০ হাজার টাকা ও জয়া এপারেলস নামের গার্মেন্টসকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রোববার (২৫ আগস্ট) বেলা ১১টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে শীতলক্ষ্যায় তৃতীয় দফায় চতুর্থ দিনের মত উচ্ছেদ অভিযানটি পরিচালিত করা হয়।

এ সময় একটি ৬ তলা ভবনের আংশিক, জয়া এ্যাপারেলস, স্ক্যান সিমেন্ট, ডেল্টা ডকইয়ার্ড, সোনালী পেপার মিলস, রহমান কেমিক্যালসের কিছু অংশসহ অর্ধশত কাঁচা পাকা স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেয়া হয়।

বিআইডব্লিউটিএর নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক শেখ মাসুদ কামালের তত্ত্বাবধানে আরো উপস্থিত ছিলেন উপ পরিচালক মো. শহিদুল্লাহ, সহকারী পরিচালক এহতেশামুল পারভেজসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নদীর তীর দখল ও ভরাটকারীর কখনোই মানতে চান না। তারা বলেন ভূমি অফিস থেকে তাদেরকে জমি মেপে বুঝিয়ে দিয়েছে। এ কারণে অনেক সময় উচ্ছেদ অভিযানে দীর্ঘসূত্রিতা দেখা দেয়। তবে দখলদাররা যতই বলুকনা কেন নদী দখলের বিষয়টি দৃশ্যমান। নদী দখলদারদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান চলবে।

২৫ আগস্ট, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে