NarayanganjToday

শিরোনাম

শীর্ষ সন্ত্রাসী সালু অস্ত্রসহ আটক, তারা চাচা ও গুরু দুজনই বন্দুকযুদ্ধে নিহত


শীর্ষ সন্ত্রাসী সালু অস্ত্রসহ আটক, তারা চাচা ও গুরু দুজনই বন্দুকযুদ্ধে নিহত

বন্দরের তালিকাভূক্ত শীর্ষ মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ী এবং ‘বন্দুকযদ্ধে’ নিহত মাস্টার দেলুর সেকেন্ড-ইন-কমান্ড সালাউদ্দিন সালুকে অস্ত্র ও মাদকসহ আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে উপজেলার বাগবাড়ি শ্বশুর বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়েছে।

এদিকে আটক সালাউদ্দিন সালুকে ছিনিয়ে নিতে তার সহযোগিরা ডিবি পুলিশের উপর হামলা চালায়। এতে ডিবি পুলিশের কয়েকজন আহত হয়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুড়লে নাদিম (২৮) নামে এক যুবক গুলিব্ধি হয়। সে একটি পোশাক কারখানার শ্রমিক।

সালাউদ্দিন সালু উপজেলার মদনগঞ্জের শফিকুল ইসলামের ছেলে এবং ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত পিচ্চি সুমনের ভাতিজা। এবং নারায়নগঞ্জ জেলার আলোচিত সন্ত্রাসী ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত মাষ্টার দেলুর সেকেন্ড ইন কমান্ড।

সূত্র জানায় সালাউদ্দিন সালু মদনগঞ্জের হলেও সে বন্দরের বাগবাড়ি এলাকার ওসমান মিয়ার মেয়েকে বিয়ে করে সেখানেই বসবাস করছিলো। এখান থেকেই সালু মাদক ও অস্ত্র ব্যবসার নিয়ন্ত্র করতো।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডিবি পুলিশের পরিদর্শক এনামুল হক বলেন, বন্দরে অভিযান চালিয়ে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী সালাউদ্দিন সালুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বন্দরে সালাউদ্দিনের শ্বশুর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় তাকে ছাড়িয়ে নিতে সহযোগিরা ইট-পাটকেল ছোড়ে। অত্মরক্ষার্থে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এতে কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। অভিযান এখনও চলছে। ডিবি ও পুলিশের চারটি টিম কাজ করছে। বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

এদিকে একটি সূত্র জানায়, শীর্ষ সন্ত্রাসী সালাউদ্দিন সালু মাস্টার দেলুর সেকেন্ড ইন কমান্ড হিসেবে মাদক ও অস্ত্র ব্যবসা শুরু করে। তার রয়েছে নিজস্ব বাহিনী। এই বাহিনীর সদস্যরা অস্ত্র চালানায় সিদ্ধহস্ত। তার গুরু মাস্টার দেলু ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হলে দেলুর নিয়ন্ত্রনাধিন সকল অস্ত্র চলে আসে তার হাতে। পাশাপাশি মাস্টার দেলুর সমস্ত খাতের নিয়ন্ত্রক হয়ে উঠে সালু। এরপর থেকেই তার জীবন পাল্টে যেতে থাকে। অস্ত্র ও মাদক ব্যবসার মাধ্যমে শ্বশুর বাড়ি এলাকা বাগবাড়িতে নির্মাণ করেন আলিসান বাড়ি। এর পাশাপাশি আরও কয়েকটি বাড়িও রয়েছে তার। হঠাৎ করেই প্রাইভেটকার কিনেন তিনি।

শুধু তাই নয়, এ পর্যন্ত বেশ কয়েকবার সে মাদকসহ র‌্যাবের হাতেও আটক হয়ে কারাবন্দি ছিলো। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলাও রয়েছে বন্দর ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানায়।

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে