NarayanganjToday

শিরোনাম

চাষাড়ায় ভুলচিকিৎসায় নারীর মৃত্যুর অভিযোগ


চাষাড়ায় ভুলচিকিৎসায় নারীর মৃত্যুর অভিযোগ

শহরের চাষাড়ায় কেয়ার জেনারেল হসপিটালে ডাক্তারের ভুলচিকিৎসায় মিলি আক্তার নামে এক নারীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। মাথা ব্যথা নিয়ে তিনি হসপিটালটিতে ভর্তি হয়েছিলেন।

সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে বিকেএমইএ’র সাবেক সহসভাপতি (অর্থ) জিএম ফারুকের মালিকানাধিন কেয়ার জেনারেল হসপিটালে ওই ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় রোগীর ক্ষুব্ধ স্বজনেরা হসপিটাল ভাঙচুর চালিয়েছে।

নিহত মিলি আক্তার (৩০) ফতুল্লার পূর্ব সস্তাপুরের শাহ আলমের স্ত্রী। রোববার রাত ৯ টার দিকে মাথা ব্যথার সমস্যা নিয়ে তাকে এই হসপিটালে ভর্তি করা হয়। তিনি ডা. জাহেদ আলীর তত্বাবধায়নে এখানে ভর্তি হয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন নিহতের স্বজনেরা।

নিহত মিলি আক্তারের মা মাসুদা বেগম বলেন, প্রায় সময় তার মেয়ে ব্যথার যন্ত্রণায় ভুগতেন। রোববার তার ব্যথা তীব্র হলে পপুলারের ডা. জাহেদ আলীর কাছে নিয়ে আসা হলে তিনি কেয়ার জেনারেল হসপিটালে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দিলে এদিন রাতেই তাকে কেয়ার জেনারেল হসপিটালে এনে ভর্তি করি।

তিনি আরও জানান, সকালের দিকে মিলি আক্তারকে আমরা ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করি। কিন্তু হসপিটাল থেকে ছাড়া হয়নি। কিন্তু দুপুর তিনটার দিকে হসপিটাল থেকে তড়িগড়ি করে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার জন্য বলেন এবং নিজেরাই অ্যাম্বুলেন্স এনে রোগীকে উঠিয়ে দেয়। কিন্তু তখন আমরা দেখি রোগী মৃত।

মাসুদা বেগম অভিযোগ করে বলেন, আমরা ধারণা করছি মিলি আক্তার তিনটার আগেই মারা গেছেন। বিষয়টি তারা আড়াল করেছেন।

অন্যদিকে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) মো. আসলাম হোসেন বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে ফোর্স পাঠানো হয়েছে। তবে, নিহতের লাশ স্বজনেরা বুঝে নিয়ে গেছে। কেউ এ ব্যাপারে কোনো অভিযোগ করেনি।

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে