NarayanganjToday

শিরোনাম

স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার


স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

তারা দুজনই স্বামী স্ত্রী। তবে ছিলেন। এবার এদের পরিচয় বাদী আর বিবাদী। একজন ধর্ষক আরেকজন ধর্ষিতা। সাবেক স্ত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন তারই সাবেক স্বামী দ্বারা। এমন অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করা হয় সদর মডেল থানায়। এই মামলায় অভিযুক্ত সাবেক স্বামীকে গ্রেফতার করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

৭ অক্টোবর রাতে শহরের নিতাইগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার (৮ অক্টোর) তার বিরুদ্ধে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

গ্রেফতার মিলন হোসেন (৪০) সদর উপজেলার সৈয়দপুর এলাকার মৃত আলী হোসেন বেপারীর ছেলে। তার বিরুদ্ধে স্ত্রীর ধর্ষণ অভিযোগ ছাড়াও আরও অনেক নারীর সাথে প্রতারণাপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের বিষটি আলোচনায় রয়েছে।

ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলমগীর মিলন হোসেনের গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মিলন হোসেনের বিরুদ্ধে তার স্ত্রী প্রতারণা ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছেন। সে মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৪ সালের ৭ এপ্রিল মিলন হোসেন পারিবারিক ভাবেই ওই নারীকে বিয়ে করেন। এ বছরেই ওই নারী অন্তঃসত্তা হলে জোরপূর্ব গর্ভপাত ঘটান মিলন। পরবর্তীতে তারা শহরের টকিও প্লাজার একটি ফ্ল্যাটে ভাড়ায় ছিলেন। সেসময় আবার ওই নারী অন্তঃসত্তা হলে জোর করেই গর্ভপাতের চেষ্টা চালানো হয়। তবে, এতে সে রাজি না হওয়াতে তার উপর শারীরিক নির্যাতন চালানো হয়। এরপর চলতি বছরের ওই নারীকে তালাক দেওয়া হয়েছে তেমন একটি কাগজ দেখায় মিলন।

আরও জানা যায়, ওই ঘটনায় মামলা করা হবে জানতে পেরে চলতি বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর মিলন হোসেন আবারও আসেন মামলা না করার জন্য বোঝান এবং বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সাথে রাত্রিযাপন করেন ও শারীরিক সম্পর্ক করেন। কিন্তু এরপর থেকে সে আর ওই নারীর সাথে যোগাযোগ করেননি। পরে ৭ অক্টোবর সদর মডেল থানায় ওই নারী বাদী হয়ে প্রতারণা, জোরপূর্বক গর্ভপাত ও ধর্ষন অভিযোগ এনে মিলন হোসেনের নামে মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৬।

এদিকে মিলন হোসেনকে গ্রেফতারের পর বিষয়টি আপস করার জন্য তদ্বির চালায় কয়েকটি। ওই নারীকেও ম্যানেজ করার চেষ্টা করা হয়। শুধু তাই নয়, এখনও নারীকে ম্যানেজ করে মিলন হোসেনকে আদালত থেকে বের করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে বেলও খবর পাওয়া গেছে।

৮ অক্টোবর, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে