NarayanganjToday

শিরোনাম

ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা : ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা


ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা : ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ফতুল্লার হাজীগঞ্জ বাজার এলাকায় রোববার দিবাগত রাত ৩টায় মাহমুদুল হক বাবলু (৫০) নামে এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে নিহতের বড় ভাই জুয়েল। 

সোমবার রাতে দায়ের করা এ মামলায় পুলিশ একজনকে গ্রেফতার দেখিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠিয়েছেন।

মামলায় আসামীরা হলেন, স্থানীয় আলম তার ভাই রাকিব ও তাদের ফুফাতো ভাই পলাশ এবং এ হত্যাকান্ডের মূল হোতা মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে এলাকায় পরিচিত খালেক বেপারী। পুলিশ এদের মধ্যে রাকিবকে গ্রেফতার করে রিমান্ড চেয়েছেন। নিহত বাবলু হাজীগঞ্জ এলাকার মৃত জালাল উদ্দিনের ছেলে।

নিহতের বড় ভাই জুয়েল জানান, হাজীগঞ্জ বাজারে বাবলুর টিভি-ফ্রিজ মেরামতের দোকান আছে। এ ছাড়া তিনি বাজারের দোকানগুলোতে জেনারেটরের সংযোগ দিয়ে ব্যবসা করেন।

জেনারেটরের ব্যবসার বিরোধে স্থানীয় আলম, রাকিব, পলাশ ও খালেকসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজন রাত ৩টায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বাড়ি ফেরার পথে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে বাবলুকে হত্যা করে পালিয়ে যায়। খালেক এলাকার স্থানীয় পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী। বাবলুকে হত্যার মূল হোতাই খালেক।

নিহতের খালু আইনজীবী মজিদ খন্দকার জানান, ময়না তদন্ত শেষে বাবলুর মরাদেহ বাসায় নিয়ে আসা হয়। এরপর জানাযা শেষে স্থানীয় পাঠানটুলী কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। বাবলুর এক ছেলে এক মেয়ে ও স্ত্রী রয়েছে। তাদের শান্তনা দিতে পারছিনা। দুদিন ধরে সুধু কাদছেই। তাদের কান্নায় কেহ শোক সইতে পারছেনা। আমরা বাবলু হত্যার বিচার চাই।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, বাবলু হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। পলাতক আসামীদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

৮ অক্টোবর, ২০১৯/এমএ/এনটি

উপরে