NarayanganjToday

শিরোনাম

পাকিস্তানে হামলার পরই হঠাৎ কমে গেলো ভারতীয় মুদ্রার দাম


পাকিস্তানে হামলার পরই হঠাৎ কমে গেলো ভারতীয় মুদ্রার দাম

সীমানা অতিক্রম করে পাকিস্তানের ভেতরে ঢুকে ভারতীয় বিমানবাহিনীর হামলার পর দুই দেশের মাঝে চলছে প্রবল উত্তেজনা। আর চলমান এই উত্তেজনার প্রভাব পড়েছে ভারতের শেয়ার বাজারে। কমে গেছে দেশটির মুদ্রার দাম।

মঙ্গলবারের ওই হামলার পর ভারতের শেয়ার বাজারে রূপি এবং বন্ডের দরপতন ঘটেছে।

মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৩টার দিকে সীমান্ত রেখার কাছে কাশ্মীরে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী জয়েশ-ই-মোহাম্মদের ঘাঁটিতে অভিযান চালায় ভারতীয় বিমান বাহিনী।

ভারতীয় বিমানবাহিনী বলছে, তাদের ১২টি মিরেজ ২০০০ জেট বিমান এ হামলায় অংশ নেয় এবং ১ হাজার কেজি বোমা বর্ষণ করে অনেক স্থাপনা গুঁড়িয়ে দিয়েছে। অবশ্য পাকিস্তান এ ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি অস্বীকার করেছে।

পাক অধিকৃত কাশ্মীরে হামলার খবরের ধাক্কা পড়েছে ভারতের শেয়ার বাজারে। মঙ্গলবার সকালের দিকে ভারতীয় মুদ্রা রূপির দরপতন ঘটেছে। এক ডলারের বিপরীতে রূপির মান ৭১ দশমিক ৩১ রূপি ছিল, হামলার খবরের পর তা ০ দশমিক ৪৫ শতাংশ কমে দাঁড়ায় ৭০ দশমিক ৯৮ শতাংশে।

মঙ্গলবার সকালে ভারতের বেশ কিছু গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়, পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার জবাবে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতীয় বিমান বাহিনীর হামলায় অন্তত ৩০০ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে।

এ ব্যাপারে পাকিস্তানের গ্রামবাসী জানিয়েছে, মঙ্গলবার ভোরে চারবার ব্যাপক বিস্ফোরণের শব্দ পেয়েছেন তারা। তবে এই ঘটনায় কেউ নিহত হয়নি।

প্রত্যক্ষদর্শী ২৫ বছর বয়সী মোহাম্মদ আজমল বলেন, আমরা বেশ কিছু গাছ ভেঙে পড়তে দেখেছি এবং একটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হতে দেখেছি। সেখানে বোমা নিক্ষেপ করায় চারটি গর্ত তৈরি হয়েছে বলেও জানান তিনি।এমনকি পাকিস্তানের পক্ষ থেকেও হতাহতের খবর প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। দেশটি দাবি করেছে, নিয়ন্ত্রণ রেখা লঙ্ঘন করেছে ভারতীয় বিমান বাহিনী। তবে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

পাক সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, নিয়ন্ত্রণরেখা লঙ্ঘন করেছে ভারতীয় বিমান বাহিনী। তারা মুজাফফরাবাদ সেক্টরে অনুপ্রবেশ করেছে। পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতের এয়ার স্ট্রাইকের পরপরই বেশ কয়েকটি টুইট করেছেন তিনি।

এক টুইট বার্তায় তিনি দাবি করেছেন, ভারতীয় সামরিক বিমান তাদের আকাশসীমা লঙ্ঘন করার পর পাকিস্তানি জঙ্গি বিমানের ‘তাড়া খেয়ে পালানোর’ আগে বালাকোটের কাছে ‘বোমা ফেলে’ গেছে। এই ঘটনায় কোনো হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।পরবর্তীতে আরও এক টুইটে তিনি জানিয়েছেন, সময়মত উপযুক্ত সাড়া দিয়েছে পাকিস্তানের বিমান বাহিনী। ফলে পাক বাহিনীর তাড়া খেয়ে পালাতে বাধ্য হয়েছে ভারতীয় সেনারা। সূত্র:আগামীর সময়

২৭ ফেব্রুয়ারী,২০১৯/এমএ/এনটি

উপরে