NarayanganjToday

শিরোনাম

৬১তম গ্র্যামি অ্যাওর্য়াডে এ আর রহমানের সঙ্গে হাবিব ও তাহসান


৬১তম গ্র্যামি অ্যাওর্য়াডে এ আর রহমানের সঙ্গে হাবিব ও তাহসান

যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসের স্টেপলস সেন্টারে ৬১তম গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের সন্ধ্যাটি বাংলাদেশের দুই জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী হাবিব আর তাহসানের জন্য ছিল দারুণ অভিজ্ঞতার। কাইনেটিক মিউজিকের আমন্ত্রণে এই অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার সুযোগ পান তাঁরা।

 দুই বছর আগে তাহসান আরও একবার এই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন, তবে হাবিবের জন্য এবারই প্রথম। তাই তাহসানের চেয়ে হাবিবের অবাক হওয়ার পালা ছিল সবচেয়ে বেশি। অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার আগে দর্শকসারি থেকে ফেসবুক লাইভে এসে হাবিব বললেন, ‘আমি খুবই এক্সাইটেড!’

 অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর হোটেলে ফিরে আজ সোমবার সকালে প্রথম আলোকে তাহসান বলেন, ‘একই ছাদের নিচে বিশ্বসংগীতের বড় বড় সব ব্যক্তিত্ব! আর আমরা বসেছিলাম মঞ্চের একেবারে কাছে। যখন প্রথম এসেছিলাম, তখন আমিও খুব অবাক হয়েছিলাম। এবার দেখছি হাবিবকে। তিনি তো পুরোই এক্সাইটেড!’

৬১তম গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভারতীয় সংগীতের কিংবদন্তি এ আর রহমানের সঙ্গে তাহসান ও হাবিব দুটি সেলফি পোস্ট করেন। এরপর তাহসান বলেন, ‘অনুষ্ঠানে আমাদের পাশের সারিতেই বসেছিলেন এ আর রহমান। অনুষ্ঠান থেকে বের হওয়ার পর লবিতে তাঁর সঙ্গে দেখা হয়। আমরা শুভেচ্ছা বিনিময় করেছি। তিনি বাংলাদেশের গানের ব্যাপারে জানেন। পরিচয় হওয়ার পর তিনি আমাদের ব্যাপারে বেশ আগ্রহ দেখালেন। আমাদের সঙ্গে সেলফি তুলেছেন।’

তাহসান আরও বললেন, ‘লস অ্যাঞ্জেলেসে এ আর রহমানের নিজস্ব স্টুডিও আছে। এটি খুব পরিচিত স্টুডিও। আমরা এই স্টুডিওতে যাওয়ার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছি। এ আর রহমানও রাজি হয়েছেন। আশা করছি, শিগগিরই আমরা সেখানে যাব।’

ফেসবুক লাইভে হাবিব বললেন, ‘কাইনেটিক মিউজিকের আমন্ত্রণে ৬১তম গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে এসেছি। সঙ্গে আছেন তাহসান। এখানে অনেক নিয়মকানুন। আমি প্রথম এসেছি। একেবারে দারুণ অনুভূতি। অন্য রকম অভিজ্ঞতা হলো।’

এদিকে তাহসান জানালেন, লস অ্যাঞ্জেলেস শুধু চলচ্চিত্র নয়, পাশাপাশি গানের জন্যও বিখ্যাত। এবার তিনি সেখানে একটি দ্বৈত কণ্ঠের গান রেকর্ড করবেন। ইংলিশ গান। তাঁর সঙ্গে কণ্ঠ দেবেন লস অ্যাঞ্জেলেসের একজন শিল্পী। মেয়েটির অসংখ্য ফলোয়ার। তবে তাঁর নাম এখনই তিনি প্রকাশ করতে চাননি। সেখান থেকে ফিরে তাহসান যাবেন তুরস্কে। তুর্কি এয়ারলাইনের ফটোশুটে অংশ নেবেন। এরপর দেশে ফিরবেন। সূত্র:প্রথম আলো

১১ ফেব্রুয়ারী,২০১৯/এমএ/এনটি

 

উপরে