NarayanganjToday

শিরোনাম

বুড়িগঙ্গায় নৌকাডুবি: আরও একজনের লাশ উদ্ধার


বুড়িগঙ্গায় নৌকাডুবি: আরও একজনের লাশ উদ্ধার

বুড়িগঙ্গায় নৌকা ডুবির ঘটনায় মাহী (৭) নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে দু’জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছে চারজন।

শনিবার (৯ মার্চ) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে আহসান মঞ্জিলের সামনে বুড়িগঙ্গা থেকে নৌ পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস যৌথভাবে মরাদেহটি উদ্ধার করে। সদরঘাট নৌ-পুলিশের পরিদর্শক আব্দুর রাজ্জাক বাংলা ট্রিবিউনকে এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, শিশুটির লাশ উদ্ধারের পর দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার মাধ্যমে সুরতহাল করে মিডফোর্টে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এর আগে শুক্রবার এক নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। এখনও এই ঘটনায় শিশু ও নারীসহ চারজন নিখোঁজ।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) রাত সাড়ে ১০টার দিকে কামরাঙ্গীরচর থেকে শাহজালাল মিয়া নামে এক ব্যক্তি পরিবারের সদস্যদের নিয়ে নৌকায় করে চড়ে সদরঘাটে যাচ্ছিলেন। তারা সাতজন ছিলেন নৌকাটিতে।  সদরঘাটের কাছাকাছি পৌঁছুলে সুরভী-৭ লঞ্চের ধাক্কায় নৌকাটি ডুবে যায়।

এসময় লঞ্চের পেছনে থাকা পাখার আঘাতে শাহজালালের দুই পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। নৌ পুলিশের একটি টহল দল শাহজালালকে উদ্ধার করে মিডফোর্ড হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে পঙ্গু হাসপাতালে পাঠায়। বাকিরা পানিতে তলিয়ে যায়। নিঁখোজ সদস্যরা হলেন, শাহজালালের স্ত্রী শাহিদা এবং তাদের দুই মেয়ে মীম ও মাহি, শাহজালালের ভাই দেলোয়ার, তার স্ত্রী জামশিদা ও তাদের ৭ মাস বয়সী শিশু সন্তান। নিখোঁজের পর থেকে বিআইডব্লিউটিএ ও নৌ পুলিশ সদস্যরা এবং ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছেন। নিঁখোজ হওয়া পরিবারটির লঞ্চে করে শরীয়তপুর যাওয়ার কথা ছিল। সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

৯ র্মাচ,২০১৯/এমএ/এনটি

উপরে