NarayanganjToday

শিরোনাম

সরকার অত্যাচার, নির্যাতন চালাচ্ছে, রূপগঞ্জে মির্জা ফখরুল


সরকার অত্যাচার, নির্যাতন চালাচ্ছে, রূপগঞ্জে মির্জা ফখরুল

আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতিকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করে দেশনেত্রী বেগম-খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার আহবান জানিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের ভুলতা, তারাব ও কাঞ্চন এলাকায় পথ সভায় এ আহবান জানান তিনি।

এসময় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এ নির্বাচনে সিদ্ধান্ত হবে বেগম খালেদা-জিয়া মুক্তি পাবেন কি পাবেননা। এ সরকার জনগণের উপর অত্যাচার, নির্যাতন চালাচ্ছে। শুধু তাই নয়, এ সরকারের আমলে অসংখ্য নেতাকর্মীর উপর অত্যাচার, জুলুম, নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। তার জন্যই গণতন্ত্রকে মুক্ত করা প্রয়োজন। আমরা মুক্ত দেশ মুক্ত গণতন্ত্র চাই। তাই গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে আনতে আগামী ৩ শে ডিসেম্বর ধানের শীষে ভোট দিয়ে কেন্দ্র থেকে ফলাফল নিয়ে বাড়িতে ফিরতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আগামী ৩০শে ডিসেম্বর নির্বাচনে বিজয়ী হলে যুবকদের জন্য চাকুরির ব্যবস্থা করা হবে, যতদিন চাকুরি দিতে পারবো ততদিন যুবকদের ভাতা প্রদান করা হবে। মেয়েদের লেখাপড়া বিএ, বিকম, বিএসসি পর্যন্ত বিনা বেতনে পড়ার সুযোগ করা হবে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমরা ক্ষমতায় এলে বিদ্যু ও সারের দাম কমিয়ে আনবো। দেশে ইনসাফ প্রতিষ্ঠা করবো। আপনারা ৩০শে ডিসেম্বর সকাল সকাল ভোট দিয়ে ভোট গননা শেষ করে বাড়ি ফিরবেন। আমাদের অসংখ্য ভাই গুম হয়েছেন এবং মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন। ক্ষমতায় এলে জেলে থাকা ভাইদের মুক্ত করে আনবো।

পথসভায় উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের বিএনপি মনোনিত প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা কাজী মনিরুজ্জামান মনির, বেগম খালেদা-জিয়ার উপদেষ্টা অ্যাড. তৈমুর আলম খন্দকার, তারাব পৌর বিএনপির সভাপতি নাছির উদ্দিন ভুইয়া, কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা আশরাফুল হক রিপন, জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের সভাপতি আনোয়ার সাদাত সায়েম, সাধারন সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান, জেলা ছাত্রদল নেতা আমিরুল ইসলাম ইমন প্রমুখ।

উপরে