NarayanganjToday

শিরোনাম

এবার আইভী ও সুফিয়ানকে ঘিরে শামীম অনুসারিদের বিকৃত পোস্ট


এবার আইভী ও সুফিয়ানকে ঘিরে শামীম অনুসারিদের বিকৃত পোস্ট

এবার মেয়র আইভীর ছবি বিকৃত করে ‘আরফি চৌধুরী’ ও ‘পিয়াস প্রধান’ নামে পৃথক দুটি ফেসবুক আইডিতে পোস্ট করাকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জে ব্যাপক তোলাপাড় শুরু হয়েছে। এসব আইডিতে মেয়রের পৃথক চারটি ছবি চারটি আকৃতিতে পোস্ট করা হয়।

ছবিগুলোর মধ্যে একটি ছবিতে মেয়র আইভীকে কনের সাজে সাজিয়ে এবং ঠিকাদার সুফিয়ানকে বরের বেশে সাজিয়ে সেখানে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে ‘নারায়াণগঞ্জের সেরা ভালোবাসা’। বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) সন্ধ্যার দিকে ওই পোস্টটি আলোচনায় আসলে এ নিয়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয় সর্বত্র।

এছাড়াও অন্যান্য ছবিগুলোর মধ্যে আইভীকে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দেবতা কালির আকৃতি দেওয়া হয়। এবং মূল পোস্টে অশ্লীল শব্দ প্রয়োগ করে ক্যাপশন দেওয়া হয়।

১৮ মার্চ মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে ‘নারায়ণগঞ্জের সচেতন নাগরিক সমাজ’ এর ব্যানারে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করে। ওই স্মারকলিপিতে মেয়রের বিরুদ্ধে জামায়াতের সাথে সম্পর্ক, বিএনপির সাথে সম্পর্ক এবং ওসমান পরিবার ও প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের বিরুদ্ধে কূৎসা রটানোর অভিযোগ উত্থাপন করা হয়।

স্মারকলিপি প্রদানের মাত্র দুদিনের মাথায় মেয়রকে নিয়ে এমন বিকৃত ফেসবুক পোস্ট আসায় যারপরনাই ক্ষুব্ধ হয়েছেন অনেকেই। তারা বলছেন, এটি নোংরামির চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। যা অত্যন্ত নিন্দনীয় ও লজ্জাজনক একটি কাজ বলে মন্তব্য করেছেন তারা।

এদিকে আরফি চৌধুরী আইডিতে প্রবেশ করে তার সম্পর্কে জানা গেছে, পেশার স্থানে ‘ব্যবসায়ী ব্যক্তি’ লেখা রয়েছে। এছাড়া পড়াশোনার স্থান হিসেবে দেখানো হয়েছে সে তোলারাম কলেজের শিক্ষার্থী। এবং তিনি নারায়ণগঞ্জের বাসিন্দা হিসেবেই তার ঠিকানাতে লিখেছেন।

সূত্র হতে জানা গেছে, আরিফ চৌধুরীর আইডিতে তার দেওয়া সমস্ত পোস্টই ‘অনলি ফ্রেন্ড’ প্রাইভেসি দেওয়া। ফলে মেয়রের ছবি বিকৃত করা দেওয়া পোস্টটি এই প্রতিবেদক দেখতে পারেননি। তবে, আরিফ চৌধুরী আইডিতে অন্য যারা যুক্ত রয়েছেন তাদের মধ্যে একাধিক ব্যক্তি মেয়র ও সুফিয়ানকে নিয়ে করা পোস্টটি দেখতে পেয়েছেন এবং সেটি স্ক্রিনশট নিয়ে নারায়ণগঞ্জ টুডে’তে প্রেরণ করেন।

তবে, আরিফ চৌধুরী নামে ওই আইডিটি হ্যাক হয়েছে কিনা কিংবা সে জেনে বুঝে ওই পোস্টটি দিয়েছেন কিনা সে ব্যাপারে আইডির মালিকের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তার ফেসবুক মেসেঞ্জারে নক করার পরও এই প্রতিবেদকের মেসেজের কোনো উত্তর আসেনি।

অন্য একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, আরিফ চৌধুরী ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন। তবে কোন ইউনিটে রয়েছে সেটি নিশ্চিত হওয়া না গেলেও তার ফেসবুক আইডিতে ঘুরে বোঝা গেছে তিনি ওসমান পরিবারের অনুসারি। ফলে অনেকেই ধারণা করছেন, মেয়র আইভীর প্রতি তীব্র ক্ষোভ থেকেই ওই তরুণ অমন একটি পোস্ট দিয়েছেন।

অপরদিকে পিয়াস প্রধানের আইডিতে প্রবেশ করে দেখা গেছে, সে তার ফেসুবকের বায়োতে তোলারাম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাথে সম্পৃক্ত লিখে রেখেছেন। পড়েছেন আদর্শ স্কুলে। এবং তিনি তার আইডিতে নারায়ণগঞ্জের বাসিন্দা হিসেবেও নিজেকে পরিচয় দিয়েছেন।

তবে, এই পোস্টটি কি তিনি নিজেই দিয়েছেন নাকি তার আইডি হ্যাকঙ হয়েছে সে ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে আরিফ চৌধুরী নামে আইডিতে মেয়রের বিকৃত করা যে চারটি ছবি পোস্ট করা হয়েছে তার একটি সে সেখান থেকে নিয়ে এখানে পোস্ট করেছেন।

এদিকে এ প্রসঙ্গে জানতে মেয়র আইভীর ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত এবং আইভীর ছবির সাথে সংযুক্ত থাকা অপর ছবির ব্যক্তি সুফিয়ানের মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি তা গ্রহণ করেননি। ফলে তার পক্ষ থেকে কোনো ধরণের বক্তব্য গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি।

এছাড়াও মেয়র আইভীর পার্সোনাল সেক্রেটারী আবুল হোসেনের মুঠোফোনে কল করা হলেও তিনি তা গ্রহণ করেননি। তবে, মেয়রের ছোট ভাই ও মহানগর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আহম্মদ রেজা উজ্জ্বল ছবিটি দেখেননি তবে এমন পোস্ট কেউ করেছেন বলে তিনি শুনেছেন জানিয়েছে বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমার কোনো মন্তব্য নেই।’

২১ মার্চ, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে