NarayanganjToday

শিরোনাম

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপি কিতাবে আছে গোয়ালে নেই


সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপি কিতাবে আছে গোয়ালে নেই

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপি এখন অনেকটাই ঘুমন্ত। যা কিতাবে আছে গোয়ালে নেই। তাই প্রশ্ন উঠেছে, এই ঘুমন্ত বিএনপিকে কে জাগিয়ে তুলবে? গত কয়েক বছর ধরেই এমন প্রশ্ন বেশ ভালোভাবেই উচ্চারিত হচ্ছে। কিন্তু একজন ব্যক্তি নিজের ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখার জন্য কোনো উদ্যোগ নিচ্ছেন না।

এদিকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপির সদস্য সচিব মামুন মাহমুদ নিজেও এই কমিটি গঠন করা নিয়ে কোনো রকম মাথা ঘামাচ্ছেন না। তিনি বর্তমানে জেলা বিএনপিরও সাধারণ সম্পাদক। তবে, মজার বিষয় হলো, অন্য থানা এলাকার কমিটির রাতারাতি গঠনের উদ্যোগ তিনি এবং তার সভাপতি নিলেও সিদ্ধিরগঞ্জ নিয়ে রহস্যজনক ভাবে নীরব রয়েছেন তারা দুজনই।

পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে সিদ্ধিরগঞ্জ বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদল সহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের একাধিক নেতাকর্মী অভিযোগ করে বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপি নামক কোনো সংগঠন আছে বলে মনে হয়না।

বিগত ৭ বছর আগে ২০১২ সালে সফর আলী ভূইয়াকে আহবায়ক আর মামুন মাহমুদকে সদস্য সচিব করে আহবায়ক কমিটি ঘোষনা করা হয়েছিল। কিন্তু কমিটি গঠনের কিছুদিন পরেই সফর আলী ভূইয়া বিদেশ চলে যাওয়ায় যুগ্ম আহবায়ক আলী হোসেনকে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক করা হয়। এর কয়েক বছর পর আলী হোসেন মারা যান। সে পদটি আজও পর্যন্ত শূন্য অবস্থায় রয়েছে।

অপরদিকে দলের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক আলী হোসেন মারা যাবার পর থেকে এই কমিটির ব্যনারে আর কোনো দলীয় কর্মসূচি বা সাংগঠনিক কর্মকান্ড পালন করতে দেখা যায়নি। শুধূ তাই নয়, এই কমিটির সদস্য সচিব মামুন মাহমুদকে ভঙ্গুর এই আহবায়ক কমিটিকে পূর্নাঙ্গ কমিটিতে রূপ দেয়ার বিন্দু পরিমান চেষ্টা করতেও দেখা যায়নি।

তারা আরও বলেন, মামুন মাহমুদ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হবার পর সবার ধারনা ছিল এবার হয়তো তিনি থানা কমিটি পূর্নগঠনের উদ্যোগ গ্রহণ করবেন। কিন্তু সবার ধারনাকে মিথ্যা প্রমাণ করে একইভাবে এ ব্যপারে নিরব ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন। অথচ ফতুল্লা থানা কমিটির সভাপতির পদ থেকে শাহ্ আলম পদত্যাগ করার একদিনের মাথায় সে কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা করে নতুন আহবায়ক কমিটি ঘোষনা করেছেন। যে কারনে আমাদের ধারনা এখানকার দলীয় রাজনৈতিক ময়দানে নিজের আধিপত্য ধরে রাখতেই মামুন মাহমুদ নিজ থানা কমিটিকে জাগিয়ে তোলার কোন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করছেন না।

তবে এমন অভিযোগের সাথে দ্বিমত পোষন করে মামুন মাহমুদ ‘নারায়ণগঞ্জ টুডে’কে বলেন, এখানে আধিপত্য ধরে রাখার কোনো বিষয় নেই। সিদ্ধিরগঞ্জ থানা কমিটি সহ অন্তত ১০টি মেয়াদোত্তীর্ন কমিটি পূর্নগঠনের পক্রিয়া চলমান রয়েছে। কোরবানীর ঈদের পর থেকে আশা করছি পর্যায়ক্রমে সেগুলো ঘোষনা করা হবে।

ফতুল্লা থানা বিএনপি কমিটি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সভাপতি পদত্যাগ করায় বাধ্য হয়ে আমাদের নতুন কমিটি দিতে হয়েছে।

পদ্যতাগ না করলেও আপনার থানা (সিদ্ধিরগঞ্জ) কমিটির আহবায়কের পদটিতো অনেক বছর ধরে শূন্য অবস্থায় আছে, সে ক্ষেত্রেতো একই পদক্ষে গ্রহণ করার কথা। তেমনটি দেখা যায়নি বা যাচ্ছে না কেন, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আহবায়ক সফর আলী ভূইয়াতো পদত্যাগ করেন নি।

তবে, সফর আলী পদত্যাগ না করলেও রাজনীতির মাঠে তার কোনো প্রকার পদচারনা নেই বলে পাল্টা প্রশ্নে স্বীকার করেন মামুন মাহমুদ।

২৫ জুন, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে