NarayanganjToday

শিরোনাম

শামীম ওসমানের ‘হেডাম’ দেখতে চেয়ে রনির চ্যালেঞ্জ


শামীম ওসমানের ‘হেডাম’ দেখতে চেয়ে রনির চ্যালেঞ্জ

শামীম ওসমানের কতটা ‘হেডাম’ আছে তা প্রমাণের জন্য রাজপথে আসার চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি। তবে, তাঁর এই চ্যালেঞ্জর পাল্টা জবাবে ছাত্রলীগ নেতা রিয়াদ প্রধান তাঁকে ‘সিকি’ ‘টোকাই’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।

রোববার (৯ সেপ্টেম্বর) রাতের দিকে রনি তাঁর ব্যক্তিগত ফেসবুকে আইডিতে ওই চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন। আর এ নিয়ে এখন পুরো সরগরম শামীম ওসমান অনুসারিরা।

শামীম ওসমান অনুসারিদের অনেকেই বলছেন, বৃহত্তর মাসদাইর আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান প্রধান ওরফে মতি প্রধানের ভাগিনা পরিচয় দানকারী মশিউর রহমান রনি বিগত বছরগুলোতে মামার কল্যাণেই গ্রেফতার এড়িয়ে রাজনীতি করতে পেরেছে।

এছাড়াও নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান প্রধান রিয়াদ ও জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাফেল প্রধানের ফুফাতো ভাই হিসেবে পরিচিত মশিউর রহমান রনি। ছাত্রদল করেও এ পরিচয়ে এতদিন সে বিভিন্ন এলাকা দাপিয়ে বেড়িয়েছিলো। কথিত আছে, মূলত আওয়ামী লীগের আশীর্বাদেই নিরাপদে এত বছর সুরক্ষিত ছিলো রনি।

যদিও মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদের ঘনিষ্ঠসূত্র দাবি করেছে, রনি তাঁদের কোনো আত্মীয় নয়। মূলত রনির মা মাসদাইরের এসে থাকার পর থেকে মতি প্রধানদের ভাই সম্বোধন করে আসছিলো। সে সুবাধে রনিও মতি প্রধানকে মামা ও রিয়াদ, রাফেলদের মামাতো ভাই বলে বিভিন্ন স্থানে ফায়দা লুটে নেয়।

এদিকে শামীম ওসমানের ‘হেডাম’ দেখতে চেয়ে ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি চ্যালেঞ্জ ঝুড়ে দিয়ে তাঁর ফেসবুক টাইমলাইনে লিখেছেন, “শামিম ওসমান সাহেব চ্যালেঞ্জ করেন বিএনপির জন্য নাকি তারা দুই একজন যথেষ্ট! একটু হাসি পাচ্ছে, ইদানিং ওনার কথা শোনলে আমার মাঝে মাঝে এমন মনে হয় যে, তার মনের ভিতর সব সময় ভয় কাজ করে।

শামিম ওসমান নির্বাচন আসলে নিজে নিজে বিলাই এর মত মিউ মিউ করে বরকা পরে পালিয়ে যাওয়ার রাস্তা খোঁজে আগে নিজেকে শেভ (সেইফ) করেন পরে বিএনপিকে নিয়ে ভাববেন। আমি জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হিসেবে বলতে চাই, প্রশাসনকে ব্যবহার না করে রাজপথে আসেন দেখি কার কত হেডাম আছে। বিগত ১২ বছর আন্দোলন করে আসছি আমার মনে হয় এমন ১২ বছর ক্ষমতার বাহিরে থাকলে আপনে আওয়ামী লীগ ছেরে (ছেড়ে) বিএনপিতে যোগ দিতেন। আমরা শহিদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর আদর্শে গড়া তারেক জিয়ার প্রতিষ্ঠিত সৈনিক।

আমি আপনাকে চ্যালেঞ্জ করছি না, তবে এটা বলছি তারেক জিয়া যখন আমাদের নির্দেশ দিবে তখন, সকল জাতীয়তাবাদী শক্তি মাঠে নামবে পৃথিবীর কোনো শক্তি নাই তখন প্রতিহত করার। ইনশাআল্লাহ খুব তাড়াতাড়ি শামিম (শামীম) ওসমান এর জবাব রাজপথে দেয়া হবে।”

অপরদিকে রনির এমন স্ট্যাটাসের পর শামীম ওসমান অনুসারিদের মধ্যে তীব্র অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়েছে সর্বত্র। অনেকেই বলছে, ছাত্রলীগ নেতা রিয়াদ, রাফেলদের আস্কারাতে তাঁদের আত্মীয় হওয়ার সুবাধে এতটা বাড় বেড়েছে মশিউর রহমান রিনর। তবে, রনির এমন স্ট্যাটাসের দাঁতভাঙ্গা জবাবও দিয়েছেন মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ।

রনিকে তিনি ‘সিকি’ দাবি করে লিখেছেন, “আজকাল দেখলাম ছাত্রদলের সিকি, তেলাপোকা, ছেচরা পোলা ফেসবুকে জননেতা ও এমপিদের নিয়া বাজে কথা লিখে।তোদের পায়ের তলায় মাটি নাই এইটা কি জানোস না।না জানলে সামনে পর জানবি।মনে রাখবি তোরা এখন রাস্তার পাগল।ভিক্ষা কইরা খা রাজনীতি তোগো দিয়া আর হইব না।তোদের ইড়ংং রা হইল চামচা আর তোরা কি একবার চিন্তা কইরা দেখ।এই ধরনের তেলাপোকা টাইপের পোলাপান গো কি করা উচিত বিচার আমাদের ছোট ভাইরা আগে করবে তারপরে আমরা করব।কিন্তু বিচার হবে।মনে রাখবি ২০৪১ পর্যন্ত তোরা আসামীরা পালিয়ে থাক আর রাস্তায় ভিক্ষা কর ক্ষমতা ছাই ছাই (চাই চাই)।”

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮/এসপি/এনটি

উপরে