NarayanganjToday

শিরোনাম

শামীম ওসমানকে মানুষ ভালোবাসে না, ভয় পায় : আকরাম


শামীম ওসমানকে মানুষ ভালোবাসে না, ভয় পায় : আকরাম

জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জকে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে সমাবেশ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। খুব শিগগিরই এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসতে পারে। তবে, রাজশাহী’র সমাবেশের পর এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন সাবেক সংসদ সদস্য ও নারায়ণগঞ্জ জেলা নাগরিক ঐক্যের প্রধান সমন্বয়ক এসএম আকরাম।

তবে, এটুকু তিনি নিশ্চিত করেছেন যে, এই সমাবেশটি সাংসদ শামীম ওসমানের ছুড়ে দেয়া চ্যালেঞ্জে করা হবে না। জেলা ভিত্তিক কিছু সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত তাদের আগেই ছিলো। সেই ধারাবাহিকতায় এই সমাবেশ হবে। তবে, অন্য যেকোনো জেলার থেকে নারায়ণগঞ্জকে অধিক প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে।

সোমবার (২৯ অক্টোবর) নারায়ণগঞ্জসহ দেশের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের পরিকল্পনা সম্পর্কে নারায়ণগঞ্জ টুডে’র সাথে একান্ত আলাপ চারিতাকালে ওই কথাগুলো বলেন এসএম আকরাম।

শামীম ওসমানের চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে তিনি বলেন, তার রাজনীতি মানেই পেশি শক্তি নির্ভর। আর এই পেশি শক্তি দিয়ে তিনি লোক সমাগম ঘটাতেই পারেন। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, যারা সেদিন তার সমাবেশে এসেছিলেন, তারা কী সবাই শামীম ওসমানকে ভালোবাসেন? নাকি তার ভয়ে সেদিন সমাবেশে আসতে অনেকেই বাধ্য হয়েছিলেন? তাছাড়া আমরা পেশি শক্তির রাজনীতি করি না। তাই জোর করে সমাবেশে লোক সমাগম ঘটানোর কোনো প্রবণতাও নেই। আমাদের সমাবেশে এ পর্যন্ত যারা গিয়েছিলেন এবং যারা আসবেন তারা ভালোবাসা এবং শ্রদ্ধা করেই আসবেন। কেউ ভয় থেকে আমাদের সমাবেশেও আসেনি, আসবেও না।

জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টকে নারায়ণগঞ্জে সমাবেশ করার যে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন শামীম ওসমান তা নিয়ে তারা কোনো মাথা ঘামাচ্ছেন না। তথা শামীম ওসমান কী বলেছেন আর কী বলেননি তা সেভাবে গ্রাহ্য করার কিছু নেই জানিয়ে এসএম আকরাম বলেন, কে চ্যালেঞ্জ ছুড়েছে আর কে ছুড়ে নাই, এ নিয়ে ভাবার সময় আমাদের নেই। আমরা পেশি শক্তি প্রয়োগ করে রাজনীতি করতে আসিনি। সুষ্ঠু ধারার রাজনীতি করতে আসছি এবং চলমান রাজনীতিতে যে অপসংস্কৃতি চলছে তার পরিবর্তন ঘটিয়ে বাংলাদেশের রাজনীতিতে একটি সুন্দর সংস্কৃতি স্থাপনসহ মানুষের মৌলিক অধিকার এবং গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্যই জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট।

প্রধানমন্ত্রীকে সংলাপে বসার আহ্বান জানিয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলো জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট। সেই চিঠির জবাবে সোমবার (২৯ অক্টোবর) জবাব দিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ‘জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের সাথে সংলাপে বসা হবে। এ সম্পর্কে দলটিকে আনুষ্ঠানিক ভাবে চিঠি দিয়ে সময়, তারিখ জানিয়ে দেওয়া হবে।’ এর প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট নেতা এসএম আকরাম বলেন, এটি একটি পজেটিভ দিক। এই দিকটা বাংলাদেশের রাজনীতিতে খুব অভাব।

তিনি বলেন, রাজনীতিতে আসলে শেষ বলে কিছু নেই। সবার ঐক্য মতের ভিত্তিতে সব কিছুই যখন ইচ্ছে আবারও শুরু করা সম্ভব। আমরা মনে করি সংলাপের মাধ্যমে ভালো কিছু হবে। সুষ্ঠু নির্বাচনের একটি পথ তৈরি হবে। আশা করছি সরকারকে আমরা যে ৭ দফা দিয়েছি, সেগুলো পূরণে এই সংলাপ অত্যন্ত কার্যকর ভূমিকা রাখবে।

এদিকে নারায়ণগঞ্জে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট সমাবেশ করার লক্ষ্যে প্রস্তুতিমূলক সভা করেছেন। এই সভাটি দেলোয়ার হোসেন চুন্নুর বাড়িতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এমন একটি খবর চাউর হয়েছে শহরে। এ প্রসঙ্গে এসএম আকরাম জানিয়েছেন, সেটি সমাবেশ প্রসঙ্গে বসা হয়নি। কোনো আনুষ্ঠানিক বৈঠকও নয়। দীর্ঘদিন ধরে তাদের সাথে দেখা নেই। চুন্নু বারবার চায়ের দাওয়াত দিচ্ছিলো। সে হিসেবেই সেখানে যাওয়া এবং সাথে আরও কয়েকজন ছিলো। তখন ঐক্য ফ্রন্ট নিয়ে অনানুষ্ঠানিক আলোচনা হয়েছে। কিন্তু সেটি সমাবেশের প্রস্তুতি নয়। সমাবেশের প্রস্তুতি নেয়া হবে রাজশাহী’র সমাবেশের পর।

২৯ অক্টোবর, ২০১৮/এসপি/এনটি

উপরে