NarayanganjToday

শিরোনাম

কিংমেকারের সাথে শাহ আলমের গোপন বৈঠকে তোলপাড়


কিংমেকারের সাথে শাহ আলমের গোপন বৈঠকে তোলপাড়

আগেই অভিযোগ ওঠেছিলো ক্ষমতাসীন দলের সাথে শাহ আলমের আঁতাত রয়েছে। যার কারণে বিগত দশ বছর তিনি মাঠে নামেননি। মামলা-হামলার শিকারও হননি। তবে, সেটি এবার আরও স্পষ্ট হয়ে ওঠেছে প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শামীম ওসমান ও মহাজোটের প্রার্থী সেলিম ওসমানের পক্ষে ভোট চেয়ে বেড়ানো কিংমেকার মোহাম্মদ আলীর সাথে শাহ আলমের বৈঠকের খবরে।

মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) বিএনপি থেকে মনোনয়ন পাওয়ার পরই শাহ আলম ছুটে যান কিংমেকার মোহাম্মদ আলীর বনানীর ডিওএইচ’র বাড়িতে। সেখানে তাদের মাঝে দীর্ঘক্ষণ চলে বৈঠক। আর এই বৈঠকের কিছু ছবি ফেসবুকে এখন ভাইরাল।

এদিকে যে কিংমেকার সরাসরি বিএনপি’র বিরোধীতা করে আওয়ামী লীগের পক্ষে সরাসরিই ভোট চেয়েছেন বিভিন্ন সভা-সমাবেশে। এছাড়াও তিনি দীর্ঘদিন ধরেই নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী ওসমান পরিবারের ঘনিষ্ঠজন হিসেবেই পরিচিত। যার সাথে বর্তমানে বিএনপির সাথে কোনো ধরণেরই সম্পর্ক নেই। অথচ সেই মোহাম্মদ আলীর সাথে শাহ আলমের গোপন বৈঠকের বিষয়টি ভালো ভাবে নিচ্ছেনা বিএনপি’র তৃণমূল নেতাকর্মীসহ সাধারণ ভোটাররাও।

তবে, প্রশ্ন ওঠেছে মোহাম্মদ আলীর সাথে গোপন বৈঠকে কী কথা বলেছেন শাহ আলম? এ নিয়েই এখন ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জে চলছে ব্যাপক সমালোচনা। কারো কারো প্রশ্ন, এই আসনটি স্বেচ্ছায় শামীম ওসমানের হাতে তুলে দিতেই কী কিংমেকারের সাথে গোপন বৈঠক করেছিলেন শাহ আলম?

২৮ নভেম্বর, ২০১৮/এসপি/এনটি

উপরে