NarayanganjToday

শিরোনাম

না.গঞ্জ বিএনপিতে টানাপড়েন আ.লীগে না পাওয়ার হতাশা


না.গঞ্জ বিএনপিতে টানাপড়েন আ.লীগে না পাওয়ার হতাশা

রাজনৈতিক মামলা, গ্রেফতার, নির্যাতন, আত্মগোপন সর্বোপরি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের ভড়াডুবির ফলে অনেকটাই আস্থাহীনতায় ভুগছে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি।

অপরদিকে, আওয়ামী লীগ টানা তৃতীয় বারের মত ক্ষমতায় এসেও নিজেদের মধ্যে নিজেরাই জড়িয়ে যাচ্ছে দ্বন্দ্বে। বিশেষ করে পাওয়া না পাওয়ার হিসেব কষতে গিয়ে ক্ষমতাসীন দলটির নেতাকর্মীদের অন্তর্দ্বদ্ব প্রকট হয়ে উঠছে। তবে তা এখনও দৃশ্যমান না হলেও আগামীতে প্রকাশ্য দ্বন্দ্বে এরা জড়িয়ে যেতে পারে।

সূত্র মতে, টানা তৃতীয় বারের মতো রাষ্ট্র ক্ষমতায় আওয়ামী লীগ। দলটির তৃণমূলে থেকে শুরু করে স্থানীয় পর্যায়ের নেতৃত্বদানকারী অনেকেই এখন হিসেব কষতে শুরু করেছে তাদের প্রাপ্তি নিয়ে। এ হিসেব কষতে গিয়ে কেউ কেউ শূন্য থাকলেও অনেকেই দলের ব্যানারে পরিবর্তন করে নিয়েছেন ভাগ্য। এতে করে সুবিধে না পাওয়া দলের মধ্যে ক্ষোভ ও হতাশা দানা বাঁধতে শুরু করেছে।

দলটির অনেকেই বলছে, দলীয় ব্যানারে কেউ কেউ এতটাই ধন সম্পদের মালিক হচ্ছেন আবার কেউ দিন ভিখারীর মতো এখনও চলছে। এক পক্ষের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটলেও অন্য পক্ষের ভাগ্যাকাশে কালো মেঘের ঘনঘটা দেখেই তারা হতাশায় জড়িয়ে যাচ্ছেন এবং এরা দলের সুবিধাভোগীদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে কথা বলতে শুরুও করেছেন। এতে করে দলটির মধ্যে দেখা দিয়েছে অন্তর্দ্বন্দ্ব। যা আগামীতে প্রকাশ্য দ্বন্দ্বের রূপ ধারণ করতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে।

এছাড়াও নির্বাচনের সময় প্রকাশ্যে নিজেদের প্রার্থী হিসেবে আত্ম-প্রকাশ এবং দলের সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে প্রচার প্রচারনায় অংশগ্রহন না করাই বিভেদের তালিকা লম্বা হতে শুরু করেছে। যার ফসল নির্বাচনের পর রাজনৈতিক অঙ্গন থেকে শুরু করে সর্বস্থরে কোন্দল উন্মোচিত হয়ে উঠেছে। নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগ উত্তর ও দক্ষিন মেরুর রাজনীতিতে অভ্যস্ত হয়ে পরলেও তার সীমানা এখন কয়েকটি ভাগে বিভক্ত হতে শুরু করেছে। এছাড়াও যোগ্যতানুসারে অনেক নেতাই পদ পদবী বঞ্চিত। যা নেতৃত্ব বিকাশে প্রধান বাধা হয়ে দাড়িয়েছে।

অপরদিকে, বহুদিন যাবৎ ক্ষমতার বাহিরে থেকে দলের প্রয়োজনে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামে অংশগ্রহন করে মামলা, হামলার শিকার, কারাগার, রাজনৈতিক মামলা, গ্রেফতার, নির্যাতন, আত্মগোপন সর্বোপরি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের ভড়াডুবির পর আস্থাহীনতায় ভুগছে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি। এরপরও জুলুম নির্যাতনের শিকার হয়েও দলের কাছ থেকে প্রকৃত মূল্যায়ন না পাওয়ায় দলের নেতাকর্মীরা রাজনৈতিক কর্মসূচি থেকে শুরু করে সর্বকর্মকান্ড থেকে দূরে সারে যাচ্ছে।

এছাড়াও নারায়ণগঞ্জে বিএনপির রাজনীতি এখন ভাইয়ের রাজনীতিতে পরিনত হয়ে উঠছে। এই সকল কিছু সুবিধাবাদী ভাই নেতারা আঙ্গুল ফুলে কলাগাছে রুপান্তরিত হচ্ছেন ক্ষমতাশীনদের সাথে আতাঁত ও চাটুকারীতা করে। আন্দোলন সংগ্রামের সুতিকাগার হিসেবে খ্যাত নারায়ণগঞ্জ বিএনপি পুলিশের উপর দোষ চাপিয়ে গা বাঁচিয়ে রাজনীতিতে টিকে আছে। ফলে রাজনৈতিক অঙ্গন থেকে শুরু করে দলের তৃনমূলের সাথে দূরত্ব সৃষ্টি হচ্ছে প্রতি নিয়তই। বোনাস স্বরূপ রয়েছে নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভাজন।

ক্ষমতাসীন দল ও বিএনপি উভয় দলের এই পাওয়া না পাওয়ার হিসেব মিলাতে গিয়ে প্রকাশে যে বিভেদ সৃষ্টি হচ্ছে তা ভবিষ্যত্ব রাজনীতির জন্য হুমকী স্বরুপ হতে পাে বলে ধারনা করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

১২ মার্চ, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে