NarayanganjToday

শিরোনাম

অভিভাবকহীণ নারায়ণগঞ্জ যুবলীগের বেহাল কর্মকান্ড


অভিভাবকহীণ নারায়ণগঞ্জ যুবলীগের বেহাল কর্মকান্ড

নতুন কমিটি এবং নেতা না থাকায় নারায়ণগঞ্জ যুবলীগের সাংগঠনিক কর্মকান্ড গতিহীন হয়ে পড়েছে। এই সংগঠনটির একাধিক নেতা অভিভাবক দল আওয়ামী লীগে সংযুক্ত হওয়ায় সংগঠনটিতে দেখা দিয়েছে নেতৃত্ব সঙ্কট।

সূত্র বলছে, নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদির ও সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল ইতোমধ্যে জেলা আওয়ামী লীগে সংযুক্ত হয়েছেন। এরমধ্যে কাদির দলটির সহসভাপতি এবং বাদল সাধারাণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করাতে যুবলীগ এখন অভিভাবকশূন্য। ফলশ্রুতিতে জেলা আওয়ামী লীগের কোনো কার্যক্রম নেই বললেই চলে।

এছাড়াও জেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি জাকিরুল আলম হেলালকে মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং জেলা যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজামকে মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়ছে। যুবলীগের এই কমিটির মেয়াদ এক যুগেরও বেশি সময়। নতুন কমিটি না আসা পর্যন্ত নেতৃত্বের পরিবর্তনও হচ্ছে না। আব্দুল কাদির ও আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদলসহ অন্যরা এখনও কাগজ কলমে সংগঠনটির সভপতি এবং সাধারণ সম্পাদক, সহসভাপতি ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদেই রয়েছেন।

আওয়ামী লীগের অন্যতম এই সহযোগি সংগঠনটির জেলার আওতাধিন থানা, উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কমিটিগুলোও মেয়াদ হারিয়েছে বহু আগেই। বর্তমান ক্ষমতায় থেকেও দলীও কর্মসূচিগুলোতে তেমন কোনো কার্যক্রম দেখা যায় না বলেই চলে। আর দুই একটা বিশেষ কর্মসূচিতে দীর্ঘ মেয়াদীর দায়িত্বরত কর্তাবাবুরা ফটোশেসন করেই ইতি টানছেন।

এবিষয় কয়েক জন নেতাকর্মী জানান, একই দলের অবস্থান করেও মেরু-করনের রাজনীতিতে অভ্যস্ত হয়ে পড়ায় জেলা যুবলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে সমন্বয় নেই বেশ কয়েক বছর যাবৎ। শীর্ষ এই দুই নেতার মধ্যে সমন্বয়হীনতার কারণে সংগঠনটির সাংগঠনিক অবস্থান শক্তিশালী হয়ে উঠেনি। ফলে সর্ব ক্ষেত্রেই জেলা যুবলীগ নেতৃত্বহীন হয়ে পড়ে। যার ফলশ্রুতিতে দীর্ঘদিন ধরে দলটির সংগঠনিক কার্যক্রমে স্থবিরতা নেমে এসেছে।

তারা আরও বলেন, বিশেষ করে জেলা যুবলীগের শীর্ষ দুই নেতা জেলা আওয়ামী লীগে সম্পৃক্ত হওয়ায় সংগঠনটি আজ অবহেলিত হয়ে পড়েছে সেই সাথে সাংগঠনিক কর্মকান্ডরও একই অবস্থা।  আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন হয়েও নেতৃত্বর অভাবে দলের জন্য তেমন কোন ভূমিকা রাখতে পারছে না। অথচ নেতৃত্ব দেয়ার মত অনেক নেতা আছেন যারা জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক কর্মকান্ডকে আরও গতিশীল করতে পারেন।

উপরে