NarayanganjToday

শিরোনাম

এবার হাই-বাদলের সাথে জিকে শামীমের ছবি ফাঁস


এবার হাই-বাদলের সাথে জিকে শামীমের ছবি ফাঁস

র‌্যাবের হাতে ধরা খাওয়া আন্ডার ওয়ার্ল্ডের ‘ডন’ জিকে শামীকে চিনেন না জানেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই। শুক্রবার দুপুরে জিকে শামীম ঢাকার নিকেতন থেকে আটকের পর গণমাধ্যমকে এমনই বলেছিলেন আব্দুল হাই।

অন্যদিকে এই জিকে শামীমকে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি হিসেবে প্রস্তাব করেছিলেন দলটির সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল। তবে, এ বিষয়টিও অস্বীকার করেছেন আব্দুল হাই।

তবে, শেষতক আব্দুল হাই এবং বাদলের সাথে জিকে শামীমের সম্পর্ক যে রয়েছে তার একটি প্রমাণও মিলেছে। পাওয়া গেছে একটি ছবি। যে ছবিতে আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল অসুস্থ হয়ে বিছানায় শয্যাশায়ী। তার পাশে দাঁড়ানো জিকে শামীম ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই। তবে, এই ছবিটি ঠিক কবে, কোন হাসপাতালের, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের ২৯ জুলাই জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভাতে দলটির ৭ নম্বর সহসভাপতি হিসেবে জিকে শামীমের নাম প্রস্তাব করা হয়েছিলো। আর এই প্রস্তাবক ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমও এই কথা স্বীকার করেছেন। নারায়ণগঞ্জ টুডে’কে তিনি বলেন, আমরা জিকে শামীমকে চিনি না। চিনতামও না। সেদিন আমাদের সেক্রেটারি (আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদল) জিকে শামীমের নাম প্রস্তাব করেন। তার সাথে সভাপতিরও মত ছিলো। কিন্তু না চেনার কারণে এ নিয়ে আমি, শাসমুল ইসলাম ভূইয়া, বাচ্চু ভাই, মেয়রসহ আরও অনেকেই জোরালো প্রতিবাদ করেছিলাম।

তবে, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই এই সম্পর্কে নারায়ণগঞ্জ টুডে’কে বলেছিলেন, জিকে শামীমের নাম কেউ প্রস্তাব করেছিলো কিনা সেটি আমার মনে নেই। তবে, সেদিন হট্টগোল হয়েছিলো বেশ কয়েকটি নাম নিয়ে। সেখানে মন্ত্রী গাজী সাহেবও একজনের নাম প্রস্তাব করেছিলেন। আরও কেউ কেউ কারো নাম প্রস্তাব করলে এ নিয়ে বিরোধীতা করা হয়েছিলো। কিন্তু জিকে শামীমের নাম প্রস্তাব করা হয়েছিলো কিনা সেটি মনে নেই।

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে