NarayanganjToday

শিরোনাম

১৬ হয়ে গেল নাদালের


১৬ হয়ে গেল নাদালের

ফেবারিট ছিলেন নাদালই। কিন্তু কে ভাবতে পেরেছিলেন ইউএস ওপেনের ফাইনালটা হবে এমন একপেশে! গ্র্যান্ড স্লামের ফাইনালে ‘নবাগত’ কেভিন অ্যান্ডারসনকে হারিয়ে দিতে আড়াই ঘণ্টাও লাগেনি নাদালের। জিতেছেন—৬-৩, ৬-৩, ৬-৪ গেমে।

ফেবারিট ছিলেন নাদালই। কিন্তু কে ভাবতে পেরেছিলেন ইউএস ওপেনের ফাইনালটা হবে এমন একপেশে! গ্র্যান্ড স্লামের ফাইনালে ‘নবাগত’ কেভিন অ্যান্ডারসনকে হারিয়ে দিতে আড়াই ঘণ্টাও লাগেনি নাদালের। জিতেছেন—৬-৩, ৬-৩, ৬-৪ গেমে।

ফ্লাশিং মিডোয় পরশুর এই জয়ে নাদালের গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা হলো ১৬টি। ১৯টি শিরোপা নিয়ে তাঁর সামনে এখন শুধুই রজার ফেদেরার।

১৬—সে৶ফ একটা সংখ্যা। কিন্তু নাদালের কাছে এর মাহাত্ম্য অন্য রকম। ১৬ মানে—অক্লান্ত পরিশ্রমের ফল, ঘুরে দাঁড়িয়ে নতুন বাঁকে পা রাখা। ১৬ মানে—পুরোনো নাদালকে নতুন করে চেনানো। তাই তো নাদাল বলতে পারলেন, ‘খেলার ফল বিচার করলে এটি অবশ্যই আমার ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা মৌসুম। শিরোপা জয়ের ধারায় ফিরেছি। তিনটি গ্র্যান্ড স্লামের ফাইনাল খেলেছি। এটা অনেক কিছু। আরেকটি গ্র্যান্ড স্লাম যেখানে ফাইনাল খেলা হয়নি, হেরে গিয়েছিলাম চতুর্থ রাউন্ডেই। কাজেই আমার জন্য প্রতিযোগিতামূলক বছর ছিল এটি। আর ক্লে-কোর্টে প্রায় প্রতিটি ম্যাচই জিতেছি। অবশ্য আমার জন্য এটা আবেগের বছর। কারণ চোটের কারণে আমাকে কঠিন পথ পাড়ি দিতে হয়েছে।’

আগের দুটি বছর কঠিনই কেটেছে নাদালের। চোট আর বাজে ফর্ম মিলিয়ে ক্যারিয়ার শুরুর পর প্রথমবারের মতো দুটি বছর থেকেছেন গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপাশূন্য। ১০ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো ছিটকে পড়েন র‍্যাঙ্কিংয়ের সেরা পাঁচ থেকে। কেউ কেউ তো বলতেও শুরু করেন শেষের শুরু হয়ে গেছে তাঁর। গত ফ্রেঞ্চ ওপেন জয়ের পর খোদ নাদালই বলেছিলেন—আবার গ্র্যান্ড স্লাম জিতবেন এমন আত্মবিশ্বাসটাই হারিয়ে ফেলেছিলেন!

অথচ এই নাদালই খেলেছেন বছর শুরুর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে। মন্টে কার্লো, বার্সেলোনা—দুটি মাস্টার্স জয়ের পর জেতেন মাদ্রিদ ওপেনও। এরপর ফ্রেঞ্চ ওপেন। উইম্বলডনে ব্যর্থ হলেও ফিরে পাওয়া ছন্দটা অবশেষে দেখালেন ইউএস ওপেনেও। এখন নিশ্চয়ই ফেদেরারের ১৯-কেই তাঁর পাখির চোখ করার কথা! কিন্তু চতুর্থবারের মতো র‍্যাঙ্কিংয়ের একে ফেরা নাদাল সেটি নিয়ে কোনো ভাবনাই নেই, ‘সত্যি বলতে, আমি এটা নিয়ে কখনোই ভাবিনি। আমি আমার কাজ করে যাচ্ছি। ফেদেরার করে যাচ্ছে তার কাজ। দেখাই যাক আমরা কোথায় শেষ করি। আমার ১৬টি গ্র্যান্ড স্লাম। আরও তিনটি শিরোপার ব্যবধান অনেক বড়। এসব নিয়ে আমি সত্যিই বেশি দূর ভাবছি না।’

পরশু ফ্লোরিডায় আঘাত হেনেছে হারিকেন ‘ইরমা’। ওই ফ্লোরিডাতেই বাস করেন ফাইনালে নাদালের প্রতিপক্ষ কেভিন অ্যান্ডারসন। তবে দক্ষিণ আফ্রিকান এই প্রতিপক্ষের ওপর দিয়ে আসল ঝড়টা গেছে কোর্টেই, ‘আমার প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম ফাইনালে নাদালকে পাওয়াটা ছিল কঠিন প্রশ্নপত্রের মতো। আমার রাতটাকে সে কঠিন করে দিয়েছে।’ এএফপি, রয়টার্স।

৯০   ক্যারিয়ারে ৯০ মিলিয়ন বা ৯ কোটি ডলার প্রাইজমানি পাওয়া তৃতীয় খেলোয়াড় নাদাল। প্রথম দুজন ফেদেরার ও জোকোভিচ

১৬ নাদালের গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা। ১৯ শিরোপা নিয়ে ওপরে শুধু ফেদেরার

৫ ইতিহাসে এই প্রথম গ্র্যান্ড স্লামে টানা পাঁচটি পুরুষ একক জিতলেন ৩০-এর বেশি বয়সীরা

৪ এই নিয়ে চারবার বছরের সবগুলো গ্র্যান্ড স্লাম ভাগাভাগি করে নিলেন নাদাল-ফেদেরার। ২০১০ সালের পর প্রথম

 

উপরে