NarayanganjToday

শিরোনাম

কুলাঙ্গার বাচ্চারা চেম্বার সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান হয় কিভাবে: আইভী


কুলাঙ্গার বাচ্চারা চেম্বার সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান হয় কিভাবে: আইভী

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, ‘সংসদ সদস্যের ছত্রছায়ায় নৌকাকে ফেল করিয়ে রাজাকারের সন্তান মাকসুদকে চেয়ারম্যান বানানো হয়। আমি নারায়ণগঞ্জের মানুষদের বলবো সোচ্চার হওয়ার জন্য। বিশেষ করে আমার পাশে যে বসে আছে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এত ভয়ভীতি কিসের! যখন যুদ্ধে গিয়েছিলেন তখন তো মৃত্যুকে ভয় পান নাই। আজ যখন রাজাকারের সন্তানরা বসে থাকে আপনাদের সামনে, আপনারা তাদের নেতৃত্বে অনেক কিছু করেন। সেই কথা কেন বলেন না। রাজাকারদের সন্তানদের এইখান থেকে নামানোর জন্য দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলুন। আর যে সমস্ত জায়গায় এই রাজাকারদের ছায়া দেবে আমি তাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেবো।’

সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টায় জিমখানা স্টেডিয়ামে নাসিক কতৃক আয়োজিত প্রীতি ফুটবল ম্যাচ শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার ১১ হাজার রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করেছে। ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমরা রাজাকারদের বংশধরদের কোথাও দেখতে চাই না। তার প্রেক্ষিতে আমি বলতে চাই, একজন রাজাকারের ছেলে কীভাবে নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি হয়? প্রখ্যাত রাজাকার গোলাম রাব্বানি, তার ভাই চেঙ্গিস, তার ভাই বাদল এই গলাচিপার মধ্যে অনেক মানুষকে হত্যা করেছে, লুটপাট করেছে। চেঙ্গিস যখন মারা যায় তখন পাকিস্তানের পতাকা দিয়ে তাকে জানাজা দেয়া হয়েছে। সেই কুলাঙ্গারের সন্তানরা কীভাবে সরকারি প্রতিষ্ঠন রাইফেলস্ ক্লাবের মত জায়গায় সাধারণ সম্পাদক, চেম্বর অব কমার্সের সভাপতি হয়? এই জনতার কাতারে এনে যারা তাদের বানিয়েছে তাদেরও বিচার করা উচিৎ।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এএফএম এহতেশামুল হকের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, প্যানেল মেয়র আফসানা আফরোজ বিভা, মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল ইসলাম, নাসিক ১৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কবির হোসেন প্রমুখ।

১৬ ডিসেম্বর,২০১৯/এমএ/এনটি

 

উপরে