NarayanganjToday

শিরোনাম

বন্দরে আযহারীর হাত ধরে হিন্দু যুবকের ইসলাম গ্রহণ


বন্দরে আযহারীর হাত ধরে হিন্দু যুবকের ইসলাম গ্রহণ

বন্দরে রাজু চন্দ্র সরকার নামে এক যুবক সনাতন ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম গ্রহণ করেছে। সে আলোচিত সমালোচিত ইসলামী বক্তা ড. মিজানুর রহমানের কাছে কালেমা পড়ে এই ধর্মগ্রহণ করেন।

১৯ ডিসেম্বর রাতে বন্দরের মুছাপুর ইউনিয়নে পশ্চিমপাড়া জামে মসজিদ যুব সংগঠন ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে আয়োজিত তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে মাওলানা মিজানুর রহমান বয়ান করেন। এখানে অসংখ্য মানুষের সামনে রাজু ইসলাম গ্রহণ করে নিজেই নিজের নাম রেখেছেন নূর মোহাম্মদ।

নওমুসলিম নূর মোহাম্মদ বলেন, আমি রিসার্চ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছি। কিন্তু আমি চাই না আমার কারণে আমার বাবা-মা কষ্ট পাক। আমি চাই না কেউ আমার বাবা-মাকে এ ব্যাপারে কিছু বলুক। অর্থাৎ আমি কেন ইসলাম গ্রহণ করেছি। আমি এমনি এমনি আসিনি, ইসলাম সম্পর্কে রিসার্চ করে এসেছি। আমি মিজানুর রহমান স্যারের অনেক বড় ভক্ত। আমি তার হাতে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছি। আমি আজকে অনেক রিস্ক (ঝুঁকি) নিয়ে এখানে এসেছি।

মিজানুর রহমান আযহারী বলেন, এই ওয়াজ মাহফিলে জন্য পুলিশ ভাইয়েরা অনেক কষ্ট করেছে। এ থানার ওসি সাহেব উনি ওনার প্রটোকল দিয়ে আমাকে এখানে নিয়ে এসেছেন। এছাড়া আপনাদের এলাকার চেয়ারম্যান সারাদিন অনেক কষ্ট এই প্রোগ্রামটা এনসিউর (নিশ্চিত) করেছেন। বিশেষ করে এই আসনের এমপি সেলিম ওসমান খুব খোঁজখবর নিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, বুধবার বন্দরের এই মাহফিলকে কেন্দ্র করে বিতর্কিত তামিম বিল্লাহসহ তার অনুগামীরা মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করেন। এতে দুই গ্রুপের মধ্যেকার উত্তেজনাপূর্ণ অবস্থাকে কেন্দ্র করে পুলিশ প্রশাসন আজহারীর মাহফিলে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। তবে শর্ত সাপেক্ষে বৃহস্পতিবার বিকেলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ায় রাতে মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে দুইদিন ধরে টান টান উত্তেজনার পর শেষ সময়ে শর্ত সাপেক্ষে আযহারীর মাহফিলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া মাহফিল শুরু হয়।

২০ ডিসেম্বর, ২০১৯/এসপি/এনটি

উপরে