NarayanganjToday

শিরোনাম

নিজ মেয়েকে ধর্ষণের পর ভাড়াটিয়া শিশুকন্যাকে ধর্ষণ, গণপিটুনী


নিজ মেয়েকে ধর্ষণের পর ভাড়াটিয়া শিশুকন্যাকে ধর্ষণ, গণপিটুনী

শহরের আলামিন নগর এলাকায় দুই বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে জাহাঙ্গীর সরদার (৪৫) নামে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৮ নং ওয়ার্ডের আলামিন নগর এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে।

ধর্ষণের শিকার শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। শিশুটি আলামিন নগরের একটি বাড়ির ভাড়াটিয়া জাহাঙ্গীর মিয়ার মেয়ে।

অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর সরদার সৈয়দপুর কড়ই তলা এলাকার টুক্কু সরদারের ছেলে। এর আগেও তার বিরুদ্ধে নিজ মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ ছিলো। ওই ঘটনায় তাকে জুতাপেটার পর থানা সোপর্দ করা হয়েছিলো এবং ওই মামলা তিনি জেলও খেটেছিলেন।

ধর্ষণের শিকার শিশুর নানী মোরশেদা জানান, শিশুটিকে তার কাছে রেখে তার মা বাবা দুজনই কাজে চলে যান। প্রতিদিনের মতো এদিনও শিশুটি তার কাছেই ছিলো এবং বাসায় খেলছিলো। তখন জাহাঙ্গীর সরদার এসে তাকে চকলেটসহ অন্যান্য খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে নিজের ঘরে নিয়ে যায়।

তিনি আরও জানান, দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে হঠাৎ করেই শুনতে পাই পাশ্ববর্তী জাহাঙ্গীর সরদারের ঘর থেকে শিশুটির চিৎকারের শব্দ। পরে ওই ঘরে গিয়ে ধাক্কিয়ে দরজা খুলে দেখি শিশুটি কান্নাকাটি করছে, রক্তাক্ত অবস্থা। পরে আশপাশের লোকজন এসে জাহাঙ্গীর সরদারকে আটক করে।

স্থানীয় একটি সূত্র জানায়, এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর সরদারকে পিটুনি দিতে থাকে। এক পর্যায়ে স্থানীয় কাউন্সিলর কবির হোসাইন ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি শান্ত করেন এবং থানায় খবর দিয়ে পুলিশের কাছে তাকে সোর্পদ করেন।

কাউন্সিলর কবির হোসাইন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমি একটি বিচারে ছিলাম। এরমধ্যে শুনি একটি শিশুকে জাহাঙ্গীর সরদার ধর্ষণ করেছে। তাকে এলাকাবাসী পেটাচ্ছে। তখন সাথে সাথেই আমি থানার ওসি সাহেবকে বিষয়টি জানাই। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে আটক করলেও উত্তেজিত জনতার রোষানল থেকে তাকে নিয়ে আসতে না পেরে পুলিশ আমাকে ফোন করলে ঘটনাস্থলে যাই এবং পরিবেশ শান্ত করে অভিযুক্তকে গ্রেফতারে সহযোগিতা করেছি।

তিনি আরও বলেন, শুনেছি তার বিরুদ্ধে আগেও একটি ধর্ষণ মামলা রয়েছে। ওই ঘটনায় সে জেলও খেটেছিলো। এলাকাবাসীও বলছে, এই লোক দুষ্টু প্রকৃতির।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের ওসি অপারেশন মোহাম্মদ আব্দুল হাই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে ধর্ষণ মামলা নেওয়া হচ্ছে।

২৬ ডিসেম্বর, ২০১৯/এনটি/এসপি

উপরে